× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার

সরকারি চাকুরেদের গ্রেপ্তারে অনুমতির বিধান কেন বেআইনী নয়: হাইকোর্ট

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ৬:৪৪

সরকারি কর্মচারীদের গ্রেপ্তারের আগে কর্তৃপক্ষের অনুমোদন নেয়ার বিধান সম্বলিত ধারাকে কেন বেআইনি ও সংবিধান পরিপন্থী ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়েছে হাইকোর্ট। সোমবার জনস্বার্থে করা এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের বেঞ্চ এই রুল জারি করে। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের সচিব, জনপ্রশাসন ও আইন সচিব ও জাতীয় সংসদের স্পিকারকে এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
রিটে, রুলে সরকারি কর্মচারিদের বিশেষ সুবিধা দিয়ে প্রণীত ‘সরকারি চাকরি আইন, ২০১৮ এর ৪১(১) ধারা কেন বেআইনি ও বাতিল এবং সংবিধানের ২৬ (১) (২), ২৭ ও ৩১ অনুচ্ছেদের পরিপন্থি ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চাওয়া হয়েছে।  আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। তার সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী রিপন বাড়ৈ ও সঞ্জয় মণ্ডল। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সাইফুদ্দিন খালেদ।
গত ১৪ই অক্টোবর মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশ-এইচআরপিবির পক্ষে আইনটির ৪১(১) ধারা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় আবেদনটি করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সারোয়ার আহাদ চৌধুরী, এখলাছ উদ্দিন ভূইয়া ও মাহবুবুল ইসলাম।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Amir
২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ৭:১৮

আমি বলেছিলাম সরকারি কর্মচারীদের জন্য অনুমতির এই আইন টিকবে না, আবার বলছি -সংবিধান বিরোধী এই আইন চলতে পারে না!

অন্যান্য খবর