× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

অনুমতি না পাওয়ায় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ স্থগিত

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ৬:৫১

অনুমতি না পেয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ঘোষিত সমাবেশ স্থগিত করেছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। বুয়েট ছাত্র আবরার হত্যার প্রতিবাদে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মঙ্গলবার এ সমাবেশ আহ্বান করেছিল ঐক্যফ্রন্ট। সোমবার সন্ধ্যায় গণফোরাম সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া সমাবেশ না করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। যদিও কর্মসূচি ঘোষণার পর থেকে ফ্রন্টের নেতারা বলে আসছিলেন সমাবেশের অনুমতি না পেলেও তারা কর্মসূচি পালন করবেন। রেজা কিবরিয়া বলেন, যেহেতু পুলিশ আমাদের সমাবেশ করার অনমতি দেয়নি সে কারণে আমরা আমাদের নেতা ড.কামাল হোসেনের বাসায় বসে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পরবর্তী কর্মসূচি কি হবে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা সিদ্ধান্ত একটা নিয়েছি তবে সেটা পরে জানাবো। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের শোক সমাবেশের অনুমতি না দেয়ায় জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের এক বিবৃতিতে বলা হয়, সরকার মত প্রকাশের অধিকার খর্ব করেছে। সমাবেশ স্থগিত করা হলেও আগামীতে আমাদের আন্দোলন প্রতিবাদ অব্যাহত থাকবে।
সব স্বৈরশাসকরা এমন অগণতান্ত্রিক আচরণ করে গণরোষানলে বিতাড়িত হয়েছে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির নেতৃবৃন্দ দ্রুত আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণ করবে। উল্লেখ্য, গত ৬ই অক্টোবর বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদকে হত্যার প্রতিবাদে ২২শে অক্টোবর মঙ্গলবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নাগরিক শোক সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা দেয় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট।
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Nurul Alam
২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ১২:৩১

বিএনপি দল হিসেবে টিকে থাকতে হলে ঐক্যফ্রন্ট এবং জামাত দুটোকেই ত্যাগ করতে হবে ।জামাতের সাথে জোটবদ্ধ হওয়া বিএনপির বড় ভূল ছিল, আর ঐক্যফ্রন্টে যাওয়া ও ঠিক হয়নি ।কারণ মাঠে ময়দানে বিএনপির একক যথেষ্ঠ ভোট রয়েছে যা মহাজোট থেকে অনেক বেশি ।এখন শুধু নিরপেক্ষ নির্বাচন দরকার ।বিএনপি যত দ্রুত সম্ভব জামাত নাছাড়লে বিএনপি কে মুসলিম লীগের ভাগ্য বরণ করতে বেশি সময় লাগবে না ।উদাহরণ স্বরুপ :শিবিরের কারণে ছাত্রদল আজ icuতে ।

ahammad
২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ১০:৪৬

বি এন পির এই সঠিক সিধ্বান্ত নেওয়া উচিৎ, যাদের একক নির্বাচনে জামানত পায় না, তাদেরকে সংসদে পর্য্যন্ত পৌছে দিয়েছেন। তাদের তালবাহানায় সময় নষ্ট না করে, বিশ দলীয়জোটের দল গুলোকে সঠিক মূল্যায়ন করে কার্য্যক্রম এগিয়ে নেওয়া উচিৎ।

তারেক
২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ১০:৪৪

বিএনপি ঐক্যফ্রন্টকে ছাড়ুন। না হলে যেটুকু আছে তাও হারাবেন। সরকারের ইশারায় ঐক্যফ্রন্ট আপনাদের নিয়ে খেলতেছে। বিএনপির এই রকম নাজুক অবস্থার জন্য ফখরুল দায়ী।

ahammad
২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ৮:১৩

যত দিন বি এন পির নিতীনির্ধারকরা ঐক্যফ্রন্টের লেজুড় ভিওিতে থাকবে,ততদিন বিভিন্ন তালবাহানা করে বি এন পিকে গুরাবে।

জাফর আহমেদ
২১ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার, ৭:১৩

নেতা হতে হলে বুকে সাহস থাকতে হবে। না হয় নেতার কোন মূল্য নেই। আর ঐক্যফ্রন্টের যত নেতা সবাই এসি রুমে সংলাপের নেতা। তাই তাদের কাজের আর কথায় মিল থাকে না।

অন্যান্য খবর