× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

শ্রেণিকক্ষে ছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা সড়ক অবরোধ, শিক্ষক বরখাস্ত

বাংলারজমিন

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি | ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ৭:৩১

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের ধোপাঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির এক ছাত্রী (১২)কে বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে বিদ্যালয়ের শিক্ষক জিল্লুর রহমান শামীম (৩৬)-এর বিরুদ্ধে। এই ঘটনার প্রতিবাদে ধোপাঘাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি  শিক্ষার্থীরা গতকাল সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত দুই ঘণ্টা গফরগাঁও-ভালুকা সড়ক অবরোধ করে রাখে এবং বিদ্যালয়ের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। অভিযুক্ত শিক্ষক জিল্লুর রহমান হাকিমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, ভিকটিমের পরিবারের লোকজন ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার টিফিন পিরিয়ডে বিদ্যালয়ের শিক্ষক জিল্লুর রহমান শামীম বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেণি কক্ষে পঞ্চম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীকে অঙ্ক দেখানোর নাম করে ডেকে নিয়ে যায়। শিশু শ্রেণি ছুটি হয়ে যাওয়ায় ওই কক্ষ খালি ছিল এবং কক্ষটি বিদ্যালয়ের একদম পশ্চিম কোনায় অবস্থিত। এক পর্যায়ে শিক্ষক জিল্লুর রহমান শামীম রুমের দরজা বন্ধ করে মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ সময় মেয়েটি চিৎকার শুরু করে। মেয়েটির চিৎকার শুনে বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আসাদুজ্জামান ও দপ্তরি ইমরান ওই রুমের দরজার সামনে এসে, লাথি দিয়ে দরজা খুলে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। এ সময় অভিযুক্ত শিক্ষক জিল্লুর রহমান শামীম পালিয়ে যায়।
শামীম এরপর থেকে বিভিন্ন মহলে তদবির করে ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালায়। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে বিদ্যালয়ের কয়েকশ’ কোমলমতি শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়ে বিদ্যালয়ের সামনে গফরগাঁও-ভালুকা সড়ক দুই ঘণ্টা অবরোধ করে ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। দুুপুর ১২টার দিকে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সালমা আক্তার অভিযুক্ত জিল্লুর রহমান শামীমের বরখাস্তের সিদ্ধান্তের কথা জানালে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়। বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী সোনিয়া, লাবণী, ইতি এই ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাবেয়া পারভীন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এরপর থেকে অভিযুক্ত শিক্ষক জিল্লুর শামীম পলাতক। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) সালমা আক্তার বলেন, ইতিমধ্যে অভিযুক্ত শিক্ষক জিল্লুর রহমান শামীমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গফরগাঁও থানার ওসি অনুকূল সরকার বলেন, এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর