× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার

খুলনার সাংবাদিক মুনির উদ্দিনের রিমান্ড ও জামিন নামঞ্জুর

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা থেকে | ২৩ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ৭:৫৩

খুলনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক দ্যা নিউ নেশন পত্রিকার খুলনা প্রতিনিধি প্রবীণ সাংবাদিক মুনির উদ্দিন আহমেদের রিমান্ড ও জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছিল। মঙ্গলবার দুপুরে খুলনা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. আমিরুল ইসলাম শুনানি শেষে রিমান্ড ও জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেন।
সাংবাদিক মুনির উদ্দিনের পক্ষে আইনজীবী আক্তার জাহান রুকু জানান, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা সাইদুর রহমান সাংবাদিক মুনির উদ্দিনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছিলেন। মঙ্গলবার শুনানি শেষে আদালত রিমান্ডের ওই আবেদন নামঞ্জুর করেন। এবং তার জামিনের জন্য আবেদন করলে তাও না মঞ্জুর করেন। তিনি বলেন, ‘আদালতে শুনানিকালে সাংবাদিক মুনির উদ্দিনের পক্ষে মানবাধিকার আইনজীবী মোমিনুল ইসলামসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।’ এর আগে ২১শে অক্টোবর সোমবার সাংবাদিক মুনির উদ্দিন আহমেদকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার করা হয়। ভোলায় পুলিশ ও জনতার সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে ফেসবুকে পোস্ট দেয়ার কারণে তার বিরুদ্ধে খুলনা সদর থানার এসআই শরিফুল আলম বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ এর ২৫, ২৮, ২৯ ও ৩১ ধারায় মামলাটি দায়ের করেন। মঙ্গলবার এই মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন জানায় পুলিশ।
এদিকে প্রবীণ সাংবাদিক মুনির উদ্দিন আহমেদকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দিয়ে গ্রেপ্তারের তীব্র নিন্দা জানিয়েছে খুলনা মহানগর বিএনপি।
প্রতিবাদলিপিতে নেতৃবৃন্দ একজন সাংবাদিককে ফেসবুকে ভোলার বোরহানউদ্দিনে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার ঘটনায় প্রতিবাদী জনগণের ওপর নির্বিচারে গুলি চালিয়ে মানুষ হত্যার ঘটনায় স্ট্যাটাস দেয়ায় রোববার গভীর রাতে তাকে আটক করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দিয়ে কারাগারে প্রেরণকে স্বাধীন মত প্রকাশের বিরুদ্ধে দমননীতি হিসেবে উল্লেখ করে অবিলম্বে তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহার ও তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।
বিবৃতিদাতারা হলেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সাবেক এমপি ভাষাসৈনিক এম নুরুল ইসলাম দাদুভাই, মহানগর বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক সাবেক সিটি মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, শাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশাররফ হোসেন, জাফরউলাহ্‌ খান সাচ্চু, সম আব্দুর রহমান, অ্যাডভোকেট ফজলে হালিম লিটন, অ্যাডভোকেট বজলুর রহমান, শেখ ইকবাল হোসেন, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, শেখ আমজাদ হোসেন, অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপু, সিরাজুল হক নান্নু, মাহবুব কায়সার, আসাদুজ্জামান মুরাদ, ইকবাল হোসেন খোকন ও এসএম আরিফুর রহমান মিঠু প্রমুখ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর