× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার

পশ্চিমবঙ্গে তিন উপ-নির্বাচন ঘিরে জোরদার লড়াইয়ের ইঙ্গিত

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ১১:০৮

পশ্চিমবঙ্গে তিনটি কেন্দ্রের উপনির্বাচন ঘিওে জোরদার লড়াইয়ের ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির লড়াইকে কঠিন করতে মাঠে নেমেছে বাম-কংগ্রেস জোট।  আগামী ২৫ নভেম্বর খড়গপুর, কালিয়াগঞ্জ ও করিমপুর বিধানসভা উপ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ করা হবে। খড়গপুরের বিধায়ক রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ সাংসদ নির্বাচিত হয়েছেন। করিমপুরের বিধায়ক মহুয়া মিত্রও তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে  সাংসদ হয়েছেন। আর কালিয়াগঞ্জের কংগ্রেস বিধায়ক প্রমথনাথ রায়ের মৃত্যুতে আসনটি খালি হয়েছে। এই তিনটি আসনের মধ্যে দুটিতে বিজেপির প্রভাব বেশি, আর একটিতে তৃণমূল কংগ্রেস। তবে এই তিন উপনির্বাচনকে তিন পক্ষই একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে। আর তাই স্থানীয় নতুন প্রার্থীদে উপরই ভরসা করছে তৃণমূল কংগ্রেস ও বাম-কংগ্রেস জোট।  রাজ্যের ও কেন্দ্রের দুই শাসক দলকে ঠেকাতে অতীতের সব ভুল দূরে সরিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবেই কংগ্রেস বামফ্রন্টের সঙ্গে সমীকরণ মেনে জোট তৈরি করেছে।
এই জোট আগামী দিনে একসঙ্গে আন্দোলনের মঞ্চেও সামিল হবে। জোটের শর্ত হিসাবে ১৯৭৭ সাল থেকে ২০১৬ পর্যন্ত যে দল যে কেন্দ্রে বেশিবার জিতেছে প্রার্থী দেবে সে-ই। সেই সমীকরণ মেনে খড়গপুর ও কালিয়াগঞ্জে প্রার্থী দিচ্ছে কংগ্রেস। আর করিমপুরে প্রার্থী দিয়েছে বামেরা। বৃহস্পতিবারই বামফ্রন্টের প্রার্থীর নাম ঘোষনা করেছেন বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। করিমপুরে কংগ্রেস সমর্থিত সিপিএম প্রার্থী হচ্ছেন গোলাম রব্বি। সাংবাদিক সম্মেলনে জোট সমীকরণ খোলসা করেন বিমান বসৃ বলেছেন, খড়গপুরে কস্মিনকালে বামেরা জেতেনি। তাই সেখানে প্রার্থী দেওয়ার দাবি তোলা অনুচিত। উলটো দিকে কালিয়াগঞ্জেও কংগ্রেসের পাল্লা ভারী। এদিন বিমান বসু  খড়গপুর ও কালিয়াগঞ্জে কংগ্রেস প্রার্থীদের জয় নিশ্চিত করতে বাম কর্মী-সমর্থকদের সক্রিয় হতে নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি সকলকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, 'বিজেপি ও তৃণমূল বিরোধী ভোট যাতে ভাগ না হয় তা নিশ্চিত করতে হবে।
অন্যদিকে কংগ্রেস নেতা সোমেন মিত্র বলেছেন, বামফ্রন্টের সাংগঠনিক শৃঙ্খলার সঙ্গে কংগ্রেস কর্মীদের আবেগের মেলবন্ধন ঘটিয়ে সফল রসায়ন তৈরি করতে হবে। মহারাষ্ট্রে সদ্য বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস এবং এনসিপি জোট  এই পথেই সাফল্য পেয়েছে। তা থেকে শিক্ষা নিতে হবে। কংগ্রেসও ইতিমধ্যেই  প্রার্থী হিসেবে  কালিয়াগঞ্জ আসনে প্রয়াত বিধায়কের কন্যা ধীতশ্রী রায় এবং খড়গপুর আসনে স্থানীয় কাউন্সিলর  চিত্তরঞ্জন মন্ডলের নাম চূড়ান্ত করেছে। তৃণমূল কংগ্রেসও তিন কেন্দ্রে স্থানীয় তিন তরুণ নেতার নাম ঘোষনা করেছে। খড়্গপুরে প্রদীপ সরকার, কালিয়াগঞ্জে তপন দেব সিংহ এবং করিমপুরে বিমলেন্দু সিংহ রায় তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছেন। দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বুধবার বলেছেন, স্থানীয় নেতাদের সামনে রেখে ঐক্যবদ্ধ লড়াইয়েই জোর দেওয়া হচ্ছে। বিজেপি অবশ্য এখনও পর্যন্ত কোনো আসনেই প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর