× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২১ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

রেকর্ডগড়া রদ্রিগোতে উজ্জ্বল রিয়াল

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ৮ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৮:৫৭

ক্লাব ফুটবলের বড় মঞ্চ চ্যাম্পিয়ন্স লীগে নিজের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে নেমেই ইতিহাস গড়লেন রিয়াল মাদ্রিদের রদ্রিগো। বুধবার ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে তুর্কি ক্লাব গালাতাসারের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন এ ব্রাজিলিয়ান টিনেজ স্ট্রাইকার। তাতে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে সর্বকনিষ্ঠ ব্রাজিলিয়ান হিসেবে হ্যাটট্রিকের রেকর্ড গড়েন ‘নতুন নেইমার’ খেতাব পাওয়া রদ্রিগো। ১৮ বছর ৩০১ দিন বয়সী রদ্রিগো এই আসরের দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ হ্যাটট্রিকম্যান। তিনি পেছনে ফেলেন ইংল্যান্ডের ওয়েইন রুনিকে। ২০০৪ সালে আরেক তুর্কি ক্লাব ফেনেরবাচের বিপক্ষে ১৮ বছর ৩৪০ দিন বয়সে হ্যাটট্রিক করেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাবেক তারকা রুনি। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে সবচেয়ে কম বয়সে হ্যাটট্রিকের রেকর্ডটি রিয়ালেরই সাবেক তারকা রাউল গঞ্জালেসের দখলে। ১৯৯৫ সালের অক্টোবরে হাঙ্গেরির ক্লাব ফ্রাঙ্কভারোসির বিপক্ষে ১৮ বছর ১১৩ দিন বয়সে এ কীর্তি গড়েন স্প্যানিয়ার্ড গঞ্জালেস।
তবে পারফেক্ট হ্যাটট্রিক (ডান পা, বাঁ পা ও হেডে গোল) হিসাবে সর্বকনিষ্ঠ হ্যাটট্রিকম্যান রদ্রিগো। তিনি পেছনে ফেলেছেন প্যারিস সেন্ট জার্মেইর (পিএসজি) ফরাসি তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পেকে। গত অক্টোবরে ক্লাব ব্রুগের বিপক্ষে ২০ বছর ৩০৬ দিন বয়সে হ্যাটট্রিক করেন এমবাপ্পে।
রদ্রিগোর রাতে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে গালাতাসারেকে ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত করে রিয়াল মাদ্রিদ। জোড়া গোল করে লস-ব্লাঙ্কোসদের জয়ে অবদান রাখেন করিম বেনজেমাও। এ নিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে টানা ১৫ মৌসুমে গোল করার কৃতিত্ব দেখালেন ফরাসি স্ট্রাইকার বেনজেমা। তিনি ছাড়া এ কীর্তি আছে কেবল বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসির। ৪ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে ‘এ’ গ্রুপ থেকে দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ ষোলোর পথে এগিয়ে আছে রিয়াল।
নিজেদের মাঠে চতুর্থ মিনিটেই রিয়ালকে এগিয়ে দেন রদ্রিগো। ষষ্ঠ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন তিনি। চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসে যা কোনো খেলোয়াড়ের পক্ষে দ্রুততম ডাবলের রেকর্ড। ১৪তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে ব্যবধান বাড়ান রিয়াল অধিনায়ক সার্জিও রামোস। রদ্রিগোকে স্পটকিক নেয়ার সুযোগ দেয়া হলে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের দ্রুততম হ্যাটট্রিকের রেকর্ডটা হয়তো গড়ে ফেলতেন তিনি। ১৯৯৬ সালে এসি মিলানের হয়ে এফসি রজেনবার্গের বিপক্ষে মাত্র ২৪ মিনিটে তিন গোল করেন ইতালির মার্কো সিমোনে।
বিরতির আগমুহূর্তে চতুর্থবারের মতো গালাতাসারের জালে বল পাঠান করিম বেনজেমা। তার গোলে অবদান রাখেন রদ্রিগো। ৮১তম মিনিটে বেনজেমার দ্বিতীয় গোলে ব্যবধান হয় ৫-০। এরপর যোগ করা সময়ে বেনজেমার অ্যাসিস্টে (৯০+২ মিনিট) হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন রদ্রিগো। ম্যাচের পর তিনি বলেন, ‘বার্নাব্যুতে আমার নাম ধরে গান গাইছে সবাই। স্বপ্নের মতো লাগছিল সব। আমি খুব খুব খুশি। আনন্দময় একটা রাত কাটলো। তবে আমাকে শান্ত থাকতে হবে।’
নেইমারের শৈশবের ক্লাব সান্তোসে শুরু হয় রদ্রিগোর ফুটবল ক্যারিয়ার। এবছর তাকে দলে ভেড়ায় রিয়াল মাদ্রিদ। ‘বি’ দলের হয়ে স্প্যানিশ লীগে তৃতীয় বিভাগে ‘সেগুন্দা ডিভিশন বি) ২ ম্যাচ খেলার পর তাকে মূল দলে নিয়ে আসেন কোচ জিনেদিন জিদান। সেপ্টেম্বরে ওসাসুনার বিপক্ষে লা লিগায় অভিষেক হয় রদ্রিগোর। অভিষেক ম্যাচ রাঙিয়েছিলেন গোলে। এরপর আরো ৩ ম্যাচ খেলে করেছেন ১ গোল।
চ্যাম্পিয়ন্স লীগে সবচেয়ে কম বয়সে হ্যাটট্রিক
রাউল গঞ্জালেস (স্পেন/রিয়াল মাদ্রিদ)- ১৮ বছর ১১৩ দিন
রদ্রিগো (ব্রাজিল/রিয়াল মাদ্রিদ)- ১৮ বছর ৩০১ দিন
ওয়েইন রুনি (ইংল্যান্ড/ ম্যানইউ)- ১৮ বছর ৩৪০ দিন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর