× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

ভারতের বিরুদ্ধে লড়তে কাশ্মীরিদের প্রশিক্ষণ দিতাম: পারভেজ মোশাররফ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৪ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ২:০৭

ভারতের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কাশ্মীরি মুজাহিদিনদের প্রশিক্ষণ ও সহায়তা দিতো পাকিস্তান। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত এক ভিডিওতে এমনটাই দাবি করেছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মোশাররফ। ভারতীয় গণমাধ্যম ওই ভিডিওর বরাত দিয়ে খবর প্রকাশ করেছে। খবরে বলা হয়, মোশাররফের বিস্ফোরক এই মন্তব্যে ঝড় ওঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ভিডিওতে কাশ্মীরি ছাড়া, তালিবানস সহ একাধিক জঙ্গি গোষ্ঠীকে প্রশিক্ষণ ও সহায়তা দেয়ার কথা বলেছেন সাবেক পাক-প্রেসিডেন্ট। নিহত জঙ্গি নেতা ওসামা বিন লাদেনকে ‘পাকিস্তানের হিরো’ বলে আখ্যায়িত করেছেন তিনি। তবে স্বতন্ত্রভাবে ওই ভিডিওর সত্যতা নিশ্চিত সম্ভব হয়নি। ভিডিওটিতে কোনো দিন-তারিখ উল্লেখ নেই।
বার্তা সংস্থা এএনআই’র এক প্রতিবেদন অনুসারে, বুধবার মোশাররফের এক সাক্ষাৎকার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে পোস্ট করেন পাকিস্তানের রাজনীতিবিদ ফারহাতুল্লাহ বাবার।
ওই ভিডিওতেই জঙ্গি দলগুলোকে প্রশিক্ষণ দেয়ার কথা বলতে দেখা যায় মোশাররফকে।
ভিডিওতে তিনি বলেন, পাকিস্তানে আসা কাশ্মীরিরা বীরের আতিথেয়তা পেয়েছে। আমরা তাদের প্রশিক্ষণ দিয়েছি। সহায়তা করেছি। ভারতের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমরা তাদের মুজাহিদিন হিসেবে বিবেচনা করতাম। এরপর লস্কর-ই-তাইবার মতো সন্ত্রাসী সংগঠনগুলোর উত্থান ঘটলো। তারা আমাদের ‘হিরো’ ছিল।
সাক্ষাৎকারের এক পর্যায়ে নিহত সন্ত্রাসী নেতা ওসামা বিন লাদেন ও জালালুদ্দিন হাক্কানিকে নিয়ে কথা বলতে শোনা যায় মোশাররফকে। তিনি বলেন, ১৯৭৯ সালে আফগানিস্তান থেকে সোভিয়েত ইউনিয়নকে বের করতে ও পাকিস্তানের সুবিধার জন্য ধর্মীয় জঙ্গিবাদের সূচনা ঘটিয়েছিলাম আমরা। পুরো বিশ্ব থেকে আমরা মুজাহিদিনদের নিয়ে এসেছিলাম। তাদের প্রশিক্ষণ দিয়েছিলাম। তাদের অস্ত্র সরবরাহ করেছিলাম। আমরা তালিবানকে প্রশিক্ষণ দিয়েছি, তাদের সেখানে পাঠিয়েছি। তারা আমাদের হিরো ছিল। ওসামা বিন লাদেন আমাদের হিরো ছিল। আয়মান আল-জাওয়াহিরি আমাদের হিরো ছিল। এরপর বৈশ্বিক পরিবেশ পাল্টে গেল। বিশ্ব সবকিছু ভিন্নভাবে থেকে দেখা শুরু করলো। আমাদের হিরোরা ভিলেন হয়ে গেল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর