× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার
আলাপন

‘দিন শেষে যুদ্ধটা সবার’

বিনোদন

কামরুজ্জামান মিলু | ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ১০:৫৯

শতাব্দী ওয়াদুদ। শতাব্দী নামের অর্থ হচ্ছে একশ বছর আর ওয়াদুদ মানে প্রেমময়। ছোটবেলা থেকে অভিনয়ের প্রতি এক ধরনের পাগলামি ছিল এই তারকার। থিয়েটার করতেন, এখনো করেন। একটা সময় মনে হলো তার অভিনয় করে যদি জীবন চালানো যায় তাহলে পেশা হিসেবে কাজটা সিরিয়াসলি নেয়া যায়। তাই সব কাজ বাদ দিয়ে শুধু অভিনয় করা শুরু করলেন। প্রাচ্যনাটের সেই তরুণ অভিনেতা শতাব্দী ওয়াদুদকে এখন কে না চিনেন। প্রতিনিয়ত অভিনয়ের দ্যুতি ছড়াচ্ছেন মঞ্চ, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রে।
এরইমধ্যে ‘গেরিলা’ ছবিতে অনবদ্য অভিনয় করে জিতেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। প্রাচ্যনাট্যের হয়ে মঞ্চে ‘সার্কাস সার্কাস’, ‘এ ম্যান ফর অল সিজনস’, ‘কইন্যা’, ‘রাজা’, ‘গন্ডার’ নাটকগুলোতে পারফর্ম করেছেন তিনি। আর টিভি নাটকে আফসানা মিমির পরিচালনায় ‘গৃহগল্প’ নাটকটিতে অভিনয় করে বেশ সাড়া পেয়েছিলেন। এরপর ‘সাইকেলের ডানা’, ‘সাড়ে তিনতলা’, ‘গৃহগল্প’, ‘ঘুমঘর’সহ বেশকিছু নাটকে অভিনয় করে তিনি ছোট পর্দার দর্শকের মন জয় করেন। এরপর চলচ্চিত্রেও তিনি পিছিয়ে থাকেন নি। ‘বাপজানের বায়োস্কোপ’, ‘গেরিলা’, ‘জীবনঢুলী’, ‘ঢাকা অ্যাটাক’, ‘অজ্ঞাতনামা’সহ বেশ কয়েকটি সিনেমায় তার ব্যতিক্রমী অভিনয় দর্শকদের মন জয় করেছে। বর্তমান কাজের ব্যস্ততা নিয়ে এই অভিনেতা বলেন, বর্তমানে মির্জা সাখাওয়াত হোসেনের ‘অর্জন ৭১’ সিনেমায় অভিনয় করছি। এরইমধ্যে এফডিসিতে এ সিনেমার বেশকিছু অংশের কাজ হয়েছে। শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ অফিসার আবদুল কাদের মিয়ার মুক্তিযুদ্ধে বিশাল অবদান ছিল। এই চরিত্রেই দর্শকরা আমাকে দেখতে পাবেন। তিনি মুক্তিযুদ্ধের সময়ে পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা ছিলেন। ১৯৭১ সালের ২৭শে মার্চ লাল সবুজের জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। একই বছর তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ছবিতে আমার স্ত্রীর চরিত্রে অভিনয় করছেন মৌসুমী আপা। ছবিতে উনার চরিত্রের নাম ফিরোজা বেগম। এ ছবিতে উনার চরিত্রটিও গুরুত্বপূর্ণ। ছবিটি নিয়ে শতাব্দী ওয়াদুদ আরো বলেন, এ সিনেমার গল্পে আমার চরিত্রের পাশাপাশি মৌসুমী আপার চরিত্রটিও বেশ শক্তিশালী। কারণ সিনেমার গল্পে দেখা যাবে, যুদ্ধের সময় সেই পুলিশ অফিসারকে সাহস যোগায় তার স্ত্রী। দিন শেষে যুদ্ধটা সবার। আর এই যুদ্ধে আমার ট্রেনিংটা কাজে লাগানো যাবে-এসব কথা বলে সাহস দিয়েছিলেন পুলিশ অফিসারের স্ত্রী। এরপর একটা সময় যুদ্ধে চলে যায় আবদুল কাদের মিয়া। আসছে জানুয়ারিতে উত্তরবঙ্গে এ সিনেমার বাকি কাজ শুরু হবে। এদিকে শতাব্দী ওয়াদুদ দীপংকর দীপনের পরিচালনায় এর আগে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সিনেমায় অভিনয় করে প্রশংসা পান। এবার এই নির্মাতার নতুন সিনেমা ‘অপারেশন সুন্দরবন’-এ কাজ করতে যাচ্ছেন তিনি। পাশাপাশি আজ (শুক্রবার) তার অভিনীত ‘ইতি তোমারই ঢাকা’ সিনেমাটি বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে। সামনে মুক্তির অপেক্ষায় আছে রুবাইয়াত হোসেনের পরিচালনায় ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ও রেজওয়ান শাহরিয়ার সুমিতের ‘নোনা জলের কাব্য’। শতাব্দী ওয়াদুদ এসব সিনেমার বিষয়ে বলেন, দীপংকর দীপনের সিনেমায় আমাকে র‌্যাব বা পুলিশ এমন কোনো চরিত্রে না, ভিন্ন লুকে দেখতে পাবেন দর্শকরা। আর ‘ইতি, তোমারই ঢাকা’ ছবিতে আমাকে একজন গ্যারেজের মালিকের চরিত্রে দর্শকরা দেখতে পাবেন। ১১টা আলাদা গল্প আছে এ সিনেমায়। আমাদের গল্পের নাম ‘ঢাকা মেট্রো’। দারুণ একটি চরিত্রে অভিনয় করেছি আমি। এ ছবির পর ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ ও ‘নোনা জলের কাব্য’ নামের দুটি ছবি দর্শকরা সামনে দেখতে পাবেন। এদিকে টিভিতে নিয়মিত কাজ করছেন কি-না জানতে চাইলে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারবিজয়ী এই অভিনেতা বলেন, এখনো করছি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর