× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার

সেই সাহসী ১৬জনকে সংবর্ধনা দিলো হোটেল কস্তুরী

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১৫ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ৪:০৩

রাজধানীর নয়াপল্টনের জিএ ভবনের নিচতলায় একটি মুদি দোকানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় যেসব সাহসী ব্যক্তি আগুন নেভাতে অগ্রনী ভূমিকা রেখেছেন সেই সেই সাহসী ১৬ জনকে সংবর্ধনা দিয়েছে হোটেল কস্তুরী কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পল্টনের কস্তুরী হোটেলে এ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তাদেরকে ক্রেস্ট ও মেডেল উপহার দেয়া হয়। অনুষ্ঠানে হোটেল কস্তুরী প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাওসার আহমেদ, পরিচালক খান মোহাম্মদ ইমতিয়াজ, ড. মেহেদী মাসুদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। হোটেল কস্তুরী প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাওসার আহমেদ বলেন, গত ২ নভেম্বর বিকেলে জিএ ভবনের নিচতলায় একটি মুদি দোকানে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। এ সময় হোটেল কস্তুরীসহ ভবনের অন্যান্য ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারী ছাড়াও আশপাশের ডাব বিক্রেতাসহ অনেকেই এগিয়ে এসেছিলেন। তাদের তৎপরতার কারণে ও আল্লাহর অশেষ রহমতে ভবনটি বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পায়। এ কারণে এসব কর্মী আমাদের কাছে বীরের মতো। তাদেরকে সংবর্ধিত করতে পেরে আমরা নিজেরাও গর্ববোধ করছি।

অনুষ্ঠানে সংবর্ধনার মধ্যে হ্যাভেনস লাইটিংয়ের মো: ইউসুফ শিকদারকে বিশেষ সম্মাননা ক্রেস্ট দেয়া হয়। এছাড়া গ্লোরিয়ানার মো: সুমন গাজী ও আব্দুল করিম, ডাব বিক্রেতা সাগর, জিএ ভবনের কর্মী মো: শহীদ, শরীয়তপুর লাইটিংয়ের আল রাফিন, সিএনজি পাম্পের ইঞ্জিনিয়ার মো: ইমদাদুল, ইসরাত টাওয়ারের মাহবুব বিল্লা তানভীর ও সাদ্দাম হোসেন, হ্যাভেনস লাইটিংয়ের জিবরাত হোসেন ও ফারুক হোসেন, হোটেল কস্তুরীর ওয়াদুদ আহমেদ, হারুন অর রশীদ, আবুল কালাম, জয়দুল ইসলাম জয় ও তাবাসসুম মিজান বিনয়কে মেডেল উপহার দেয়া হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর