× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার

বিয়েতে পিয়াজ উপহার!

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ১৬ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার, ৪:১৭

পিয়াজের মূল্য বৃদ্ধিতে সারাদেশে তোলপাড়। হতাশা সাধারণ মানুষের। প্রতিদিন ঘন্টায় ঘন্টায় বাড়ছে দাম। টক অব দ্য কান্ট্রি এই পিয়াজ নিয়ে সামাজিক মাধ্যমেও চলছে নানা সমালোচনা। শুধু তাই নয়, ২৫ টাকা কেজি পিয়াজ ২৬০ টাকায় হওয়ায় তা বিয়ে বাড়ির উপহার হিসেবেও শোভা পাচ্ছে। অবিশ্বাস্য হলেও এটাই সত্যি। কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলার কালখড়পাড় গ্রামে বিয়েতে পিয়াজ উপহার দিয়েছে বরের বন্ধুরা। পাঁচ কেজি পিয়াজ রেপিং পেপারে মুড়িয়ে উপহার হিসেবে দেয়া হয়।
যা নিয়ে ইতিমধ্যে এলাকায় বেশ চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত খবরে এ তথ্য জানা যায়।  

কুমিল্লা আদর্শ উপজেলার কালখড়পাড় গ্রামের আলহাজ আবদুর রহিম মিয়ার ছেলে বিদ্যুৎ বিভাগে কর্মরত এমদাদুল হক রিপনের বিয়ের বৌ-ভাত অনুষ্ঠানে বর রিপনের বন্ধু শহিদ, শাহজাহান ও শিপন রেপিং পেপারে মুড়িয়ে ২শ' টাকা দরে পাঁচ কেজি পিয়াজ উপহার হিসেবে দেন।

কথা হয় পিয়াজ উপহার দেয়া শহিদ, শাহজাহান ও রিপনের সাথে। তারা জানান, গত কয়েক দিন ধরে পিয়াজের যে দাম বাজারে তাতে প্রতিকী প্রতিবাদ স্বরূপ বন্ধু রিপনের বৌ-ভাত অনুষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে পিয়াজ উপহার দিলাম। আমরা সাধারণ উপহার হিসেবে একটু দামী কিছু দেই। বর্তমানে পিয়াজ সবচেয়ে দামী। তাই বন্ধুর বিয়েতে পিয়াজ উপহার দিয়েছি। বেশ ভালো লাগছে। আশা করি, পিয়াজগুলো পেয়ে বন্ধুর খুব উপকার হবে।
এদিকে পিয়াজ উপহার দেয়ার একটি ৩২ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হয়। যা ইতিমধ্য বিভিন্ন গণমাধ্যমে তা প্রচার হচ্ছে।

কালখড়পাড় গ্রামের প্রবীণ ব্যক্তি আলহাজ বাচ্চু মিয়া বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। তিনি জানান, উনার আশি বছর বয়সে পিয়াজের এমন অস্বাভাবিক দাম আর দেখেননি। আর এত দামি জিনিস বিয়ের উপহার হিসেবেই মানায়, খাবার হিসেবে না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর