× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, শনিবার

রাজধানীতে ঘরের মেঝেতে গৃহবধূর রক্তাক্ত লাশ, স্বামী লাপাত্তা

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৮ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৯:০৮

রাজধানীর আদাবরের একটি বাসার মেঝে থেকে নাছিমা বেগম (৩৬) নামে এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় তার নাক-মুখে রক্ত লেগেছিল। ঘটনার পর থেকে তার স্বামী লাপাত্তা রয়েছে। পুলিশের ধারণা,  নাসিমাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর পালিয়ে গেছে তার স্বামী। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আদাবর-১০ এর ৭১২/১৯/৫৩ নম্বর বাসায় স্বামীর সঙ্গে ভাড়া থাকতেন নাসিমা। গতকাল সকাল ৮ টার দিকে স্থানীয়দের তথ্যের ভিত্তিতে ওই বাসা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। আদাবর থানার ওসি কাজী শাহীদুজ্জামান জানান, নিহতের স্বামী ডাবলু হাওলাদার রানা দর্জির কাজ করে।
নাসিমা ও ডাবলুর মধ্যে পারিবারিক বিরোধ চলছিল। নাসিমার এটি দ্বিতীয় বিয়ে। ডাবলুর আরও একটি স্ত্রী রয়েছে। পারিবারিক কলহ থেকে ডাবলু নাসিমাকে খুন করে থাকতে পারে। শনিবার রাত ১২ টা থেকে সকাল ৭ টার মধ্যে খুনের ঘটনা ঘটতে পারে। তিনি আরো জানান, তাকে সম্ভবত বালিশ চাপা দিয়ে মারা হয়েছে। সুরতহালের প্রতিবেদনে নিহতের নাক ও কানে রক্ত ঝরছিল বলে উল্লেখ আছে। ঘটনার পর থেকে ডাবলু পলাতক। তাকে ধরার জন্য বিভিন্নস্থানে অভিযান চলছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। নাছিমার গ্রামের বাড়ি বাগেরহাটের  মোড়লগঞ্জ উপজেলার চরহোগলাগুনিয়া এলাকায়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর