× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার

সতীর্থকে পিটিয়ে বড় শাস্তির মুখে শাহাদাত

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৯ নভেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার, ৮:৪৪

গৃহকমী নির্যাতনের গুরুতর অভিযোগে এর আগে জেল খেটেছেন ক্রিকেটার শাহাদাত হোসেন রাজিব। এবার মাঠে সতীর্থ খেলোয়াড়ের গায়ে হাত তুলে বড় শাস্তির মুখে তিনি। রোববার খুলনা ও ঢাকা বিভাগের মধ্যকার জাতীয় ক্রিকেট লীগের (এনসিএল) ম্যাচে সতীর্থ আরাফাত সানির গায়ে হাত তোলেন এ পেসার। ম্যাচ চলাকালেই এমন কাণ্ড ঘটান শাহাদাত। ম্যাচ রেফারি আখতার আহমেদ তার প্রতিবেদনে শাহাদাতের অপরাধকে ‘লেভেল-৪’-এর অপরাধ বলছেন। যে অপরাধের শাস্তি সর্বনিম্ন এক বছর থেকে পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা। সঙ্গে ম্যাচ ফি’র পুরোটা জরিমানা তো আছেই। রোববার খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে নিজ দলের স্পিনার আরাফাত সানি জুনিয়রকে মারধর করেন শাহাদাত।
ফিল্ডিংয়ের সময় শাহাদাত সতীর্থ খেলোয়াড় সানিকে বলের একপাশ ঘষে ‘শাইন’ করে দিতে বলেন। সানি সঠিকভাবে ঘষে দিতে পারবেন না বলায় রেগে যান তিনি। শাহাদাত সানিকে চর-থাপ্পড়, লাথি মারেন। এ সময় সতীর্থরা এসে সানিকে বাঁচান। ঘটনার পর পরই ব্যবস্থা নেন ম্যাচের আম্পায়ার। শাহাদাতকে মাঠ থেকে বের করে দেয়া হয়। এই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন তিনি। ঢাকা খেলছে ১০ জন নিয়ে।

এ ব্যাপারে আম্পায়ার্স কমিটির প্রশিক্ষক অভি আবদুল্লাহ বলেছেন, ‘লেভেল ৪ এর ঘটনা যখন ঘটবে, তখন আম্পায়াররা ক্রিকেটারকে মাঠ থেকে বের করে দিতে পারে। সেটিই হয়েছে। ওকে মাঠ থেকে বের করে দেয়া হয়েছে। এই ম্যাচে আর সে অংশ নিতে পারবে না। ওই যে লাল কার্ড ও সবুজ কার্ডের মতন। কাল (রোববার) রিপোর্ট হয়েছে। আজ (গতকাল) কার্যকর হয়েছে।’ শাহাদাতের ঘটনা নিয়ে ম্যাচ রেফারির প্রতিবেদনটি এখন টেকনিক্যাল কমিটি প্রধান মিনহাজুল আবেদিনের হাতে। অভি আবদুল্লাহ বলেন, ‘টেকনিক্যাল কমিটি বাকি সিদ্ধান্ত নেবে। লেভেল-৪ এর রিপোর্ট টেকনিক্যাল কমিটিকে করতে হয়।’
মিনহাজুল আবেদিনের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করবে শাহাদাতের ভাগ্য। শাহাদাতের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। শোনা যাচ্ছে, বড় শাস্তিই অপেক্ষা করছে শাহাদাতের জন্য। এর আগেও বেশ কয়েকবার শৃঙ্খলাজনিত কারণে শাস্তি পাওয়ার রেকর্ড আছে শাহাদাতের। গৃহ পরিচারিকাকে মারধর করে স্ত্রীসহ হাজতবাসও হয়েছিল জাতীয় দলের সাবেক এই ক্রিকেটারের।
৩৩ বছর বয়সী শাহাদাত হোসেন রাজিব একসময় জাতীয় দলের নিয়মিত মুখ ছিলেন। তবে উচ্ছৃঙ্খল জীবনযাপন করে দল থেকে বাদ পড়েন। ক্যারিয়ারে ৩৮ টেস্টে তার শিকার ৭২ উইকেট। সেরা ৬/২৭। শাহাদাত সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন ২০১৫’র মেতে পাকিস্তানের বিপক্ষে ঢাকায়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Mollah Nurul Islam
১৮ নভেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৯:৩২

ও নির্যাতনকারী ঘরে-বাইরে-মাঠে। তার গৃহকর্মী নির্যাতন মামলাটি পুনরায় শুরু  করুন। আইনের গতিতে চলতে দিন। বর্তমান অপরাধের জন্য ক্রিকেট হতে সারাজীবনের জন্য বাদ দিয়ে দিন। নচেৎ দিনে দিনে এই সাহসে ক্রিকেট কর্তৃপক্ষের গায়ে হাত তোলার সাহস পাবে। প্লীজ এখনই থামিয়ে দিন।

অন্যান্য খবর