× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার

খুলনার রেকর্ড সপ্তম শিরোপা

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২০ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ৯:০২

জাতীয় ক্রিকেট লীগের (এনসিএল) ২১তম আসরে (২০১৯-২০ মৌসুম) অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হলো খুলনা বিভাগ। গতকাল ষষ্ঠ ও শেষ রাউন্ডে ঢাকা বিভাগকে ৯ উইকেটে হারিয়ে উৎসবে মাতে তারা। এনসিএলে এটি খুলনা বিভাগের রেকর্ড সপ্তম শিরোপা। এর আগে ২০০২-০৩, ২০০৭-০৮, ২০১২-১৩, ২০১৫-১৬, ২০১৬-১৭, ২০১৭-১৮ মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন হয় খুলনা। গতবার তাদের টানা তিন মৌসুমের আধিপত্যের অবসান ঘটিয়ে ষষ্ঠ শিরোপা জেতে রাজশাহী বিভাগ। এবার প্রথম বিভাগে ৬ ম্যাচে ৩ জয় ও ৩ ড্রয়ে চ্যাম্পিয়ন খুলনার সংগ্রহ ৩৯.৮১ পয়েন্ট। ২৪.৩৯ পয়েন্ট নিয়ে রানার্সআপ হলো ঢাকা বিভাগ। ৪ ড্র, ১ জয় আর ১ হার দেখে তারা।
২১.৪৬ পয়েন্ট নিয়ে রংপুর বিভাগ হয়েছে তৃতীয়। ১৮.৬৫ পয়েন্ট থাকায় টিয়ার-১ এ চতুর্থ স্থান অধিকার করেছে রাজশাহী। নিয়মানুযায়ী তারা নেমে যাচ্ছে দ্বিতীয় বিভাগে। আর দ্বিতীয় বিভাগে শীর্ষ স্থান অধিকার করায় সিলেট বিভাগ উঠে এসেছে প্রথম বিভাগে। ৬ ম্যাচে ৩ জয়, ২ হার ও এক ড্রয়ে সিলেটের সংগ্রহ ৩৬.০৪ পয়েন্ট। ২৫.৭৯ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে ঢাকা মেট্রো। তৃতীয় স্থানে বরিশাল বিভাগ। তাদের সংগ্রহ ২১.৩৫ পয়েন্ট। ২০.৯২ পয়েন্ট নিয়ে চট্টগ্রাম বিভাগ হয়েছে চতুর্থ।

গতকাল খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে ১১৭ রানের লক্ষ্য ২৫.৪ ওভারে টপকে যায় খুলনা বিভাগ। এনামুল হক বিজয় ৭৯ আর অমিত মজুমদার ৩৩ রানে অপরাজিত থাকেন। ম্যাচসেরা হন খুলনার উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান। প্রথম ইনিংসে তাইবুরের সেঞ্চুরিতে ২৭৯ রান সংগ্রহ করে ঢাকা বিভাগ। জবাবে সোহানের সেঞ্চুরিতে ৩৭৯ রান তোলে খুলনা। গতকাল ১০২/৫ নিয়ে চতুর্থ ও শেষ দিনের খেলা শুরু করে ঢাকা বিভাগ। ১১৪ রান যোগ করে ২১৬ রানে অলআউট হয় ঢাকা বিভাগ। দ্বিতীয় ইনিংসে ঢাকার পক্ষে সর্বোচ্চ ৯৯ রান করেন রকিবুল হাসান। খুলনার হয়ে বল হাতে উজ্জ্বল জিয়াউর রহমান। তিনি নেন ৫ উইকেট। নিজেদের শেষ রাউন্ডে রংপুর বিভাগের কাছে ১৫৫ রানের বড় ব্যবধানে পরাজিত হয় রাজশাহী বিভাগ। রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে ২৪৯ রানের লক্ষ্য দেয় রংপুর। জবাবে মাত্র ৯৩ রানে গুটিয়ে যায় রাজশাহী। আলাউদ্দিন বাবু ও আরিফুল হক ৩টি করে উইকেট নেন। সাজেদুল ইসলামের শিকার ২ উইকেট। প্রথম ইনিংসে ২৭৪ রান সংগ্রহ করে রংপুর। জবাবে ২৫৪ রানে থামে রাজশাহী। ২২৮/৬ তোলে দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে রংপুর। ম্যাচসেরা হন রংপুরের অলরাউন্ডার আরিফুল হক। বরিশাল ডিভিশন স্টেডিয়ামে ঢাকা মেট্রো-বরিশাল বিভাগের মধ্যকার টিয়ার-২ এর ম্যাচটি ড্র হয়। ফজলে রাব্বীর সেঞ্চুরিতে প্রথম ইনিংসে বরিশাল ৪১৪ রান করে। জবাবে মার্শাল আইয়ুব-শামসুর রহমানের জোড়া শতকে ৪৬৬ রানে থামে ঢাকা। দ্বিতীয় ইনিংসে ২৬৯ রানে গুটিয়ে যায় বরিশাল। ৫ উইকেট নেন স্পিনার আরাফাত সানী। ঢাকা মেট্রো ১৯/১ তোলার পর ম্যাচ ড্র হয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর