× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা ইলেকশন কর্নার মন ভালো করা খবরসাউথ এশিয়ান গেমস- ২০১৯
ঢাকা, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার

দলবদল শেষ, এবার মাঠের লড়াইয়ের প্রস্তুতি

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২১ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৮:৩৩

আগের দিন ঘটা করেই দলবদলের কার্যক্রম সেরেছে নবাগত বাংলাদেশ পুলিশ, চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস। মতিঝিল পাড়ায় উত্তাপ ছড়িয়েছিল পুনর্জাগরণের ঘোষণা দিয়ে বদবদল সেরেছে মোহামেডানও। গতকাল দলবদলের শেষ দিনে আনুষ্ঠানিক ভাবে দলবদল করেছে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র এবং রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি। বাকি ক্লাবগুলোর কর্মকর্তারা সন্ধ্যার পরে বাফুফে ভবনে এসে খেলোয়াড় তালিকা বুঝিয়ে দিয়ে তাদের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করেছেন। এর মাধ্যমে শেষ হয়েছে ক্লাবগুলোর আনুষ্ঠানিক দলবদল। এবার মাঠের লড়াইয়ের প্রস্তুতি।
একেবারেই সাদামাটা, অনাড়ম্বরভাবে শেষ হয় এবারের ফুটবল দলবদলের আনুষ্ঠানিকতা। দুপুরের পর প্রথমে বাফুফে ভবনে আসে দু’বারের লীগ রানার্সআপ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ।
ক্লাবের সভাপতি জহুরুল ইসলাম রুহেল বলেন, ‘সরকারী ক্লাব হওয়ায় প্রতি মৌসুমেই আমাদের দলগঠনের জন্য টাকা-পয়সা পেতে অনেক দেরি হয়। ফলে খেলোয়াড়দেরও বেতন বকেয়া থেকে যায়। তবে এবার আমি আস্থার সঙ্গে বলতে চাই চলতি মৌসুমে এমনটি আর হবে না। খেলোয়াড়দের কারোর কোন টাকা আর বাকি নেই, সব পরিশোধ করা হয়েছে। আমাদের এবারের দলটি তারুণ্য নির্ভর। গত লীগে আমরা পঞ্চম স্থান অধিকার করেছিলাম। এবার তারচেয়েও একটু ভাল করার আশাবাদী।’ মুক্তিযোদ্ধার ম্যানেজার আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা মাঠের খেলায় ভাল কিছু উপহার দিতে চাই এবার।’ দলের কোচ আব্দুল কাইউম সেন্টু বলেন, ‘আমাদের এবারের দলটি গতবারের মতোই হয়েছে। সাফল্য পেতে আগের চেয়েও বেশি পরিশ্রম করতে হবে এবার। অন্য দলগুলোর শক্তিমত্তা আগের চেয়ে বেড়েছে। এজন্য আমাদের এবার ভালো করার চ্যালেঞ্জটা অনেক বেশি।’ সেন্টু বলেন, ‘আমাদের দলটি একটি দিক দিয়ে একটু দুর্বল। গত লীগে আমাদের হয়ে খেলা দুই বিদেশী জাপানের কাতো এবং আইভরি কোস্টের বাল্লো ফামৌসা এবার আমাদের সঙ্গে নেই। তারা ইতোমধ্যেই যোগ দিয়েছে শেখ জামাল ধানমণ্ডিতে। তাদের পরিবর্তে নিয়েছি নতুন দুই বিদেশীকে। তারা আগে থেকেই বিপিএল খেলে। একজন পল এমিল, আরেকজন ইসমাইল বাঙ্গুরা। দুজনেই চমৎকার খেলোয়াড়। দুজনেই পরীক্ষিত। আশা করি তারা আমাদের ভালো সার্ভিস দেবে।’ অন্যদিকে ঘরোয়া ফুটবলের ‘জায়ান্ট কিলার’ বলা হয় রহমতগঞ্জকে। পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী এই ক্লাব ১৯৭৭ সালের লীগে রানার্সআপ হয়েছিল। ক্লাবটির সাধারণ সম্পাদক ইমতিয়াজ হামিদ সবুজ বলেন, ‘এবার আমরা ইয়াং একটি দল গড়ার জন্য সাধ্যমত চেষ্টা করেছি।’ পরে বদবদল সেরেছে ঢাকা আবাহনী, সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব, চট্টগ্রাম আবাহনী ও উত্তর বারিধারা ক্লাব। রাত আটটার দিকে দলবদল করতে আসে আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ ও ব্রাদার্স ইউনিয়ন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর