× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার
ম্যানইউ-টটেনহ্যাম দ্বৈরথ আজ

শত্রুবেশে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফিরছেন মরিনহো

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ৪ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার, ৮:৫৪

গত মৌসুমেও তিনি ছিলেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোচ। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের ডাগআউটে দাঁড়িয়ে প্রতিপক্ষ বধের ছক আঁকতেন। কিন্তু একই ভেন্যুতে আজ ম্যানইউকে হারানোর জন্য ডাগআউটে দাঁড়াবেন কোচ হোসে মরিনহো। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের ১৫তম রাউন্ডে তার দল টটেনহ্যাম হটস্পার লড়বে রেড ডেভিলদের বিপক্ষে। আজ লীগের অপর আগুনে লড়াইয়ে অ্যানফিল্ডে মার্সিসাইড ডার্বিতে লিভারপুল মুখোমুখি হবে এভারটনের। চেলসি ঘরের মাঠে খেলবে অ্যাস্টন ভিলার বিপক্ষে। আর লেস্টার সিটি মুখোমুখি হবে ওয়াটফোর্ডের।

মরিনহো দায়িত্ব নেয়ার পর সব প্রতিযোগিতায় টানা তিন জয় দেখেছে টটেনহ্যাম। সবশেষ ঘরের মাঠে বোর্নমাউথকে ৩-২ গোলে হারায় স্পাররা।
আর ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে গত মৌসুমে ম্যানইউকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল দলটি। তখন রেড ডেভিলদের কোচ ছিলেন মরিনহো। তবে সাবেক ক্লাবের বিপক্ষে তার রেকর্ড খুবই ভালো- ৩২ ম্যাচে ১৮ জয়। হার মাত্র ৮টি। গত অক্টোবরে সাবেক ক্লাব চেলসির সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছিল মরিনহোর ম্যানইউ। তবে বড় হারও আছে। ২০১৬তে স্ট্যামফোর্ডে ব্রিজে আন্তেনিও কন্তের চেলসির কাছে ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত হয়েছিল তার দল। ব্লুদের বিপক্ষে গত বছর এফএ কাপের ফাইনালও হারেন মরিনহো।

ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের পয়েন্ট তালিকায় এই মুহূর্তে পঞ্চম স্থানে টটেনহ্যাম। ১৪ ম্যাচে স্পারদের সংগ্রহ ২০ পয়েন্ট। ম্যানইউকে হারালে চারে থাকা চেলসির (২৬) সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান কমাবে তারা। আর তৃতীয় ম্যানেজার হিসেবে দুই ভিন্ন ক্লাবের হয়ে ম্যানইউর মাঠে জয়ের কৃতিত্ব দেখাবেন মরিনহো। এর আগে জিতেছিলেন মার্টিন ও’নিল (লেস্টার সিটি ১৯৯৮, অ্যাস্টন ভিলা ২০০৯) ও রাফা বেনিতেজ (লিভারপুল ২০০৯, চেলসি ২০১৩)।

কোচ ওলে গানার সুলশারের অধীনে প্রিমিয়ার লীগে খুব ভালো অবস্থানে নেই ম্যানইউ। ১৮ পয়েন্ট নিয়ে নবম স্থানে ধুঁকছে। নিজেদের শেষ দুই লীগ ম্যাচে ড্র আর ইউরোপা লীগের ম্যাচে এফসি আসতানার মাঠে ২-১ গোলে পরাজিত হয় দলটি।

রেকর্ডের হাতছানি লিভারপুলের
লিভারপুল চলতি মৌসুমে এখনো লীগে অপরাজিত। ১৪ ম্যাচে ১৩ জয় আর এক ড্রয়ে ৪০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে তারা। আজ মার্সিসাইড ডার্বিতে এভারটনের বিপক্ষে হার এড়ালেই প্রিমিয়ার লীগে নিজেদের টানা সবচেয়ে বেশি ম্যাচ (৩২) অপরাজিত থাকার রেকর্ড গড়বে অলরেডরা। সর্বশেষ ১৯৮৭-৮৮ মৌসুমে টানা ৩১ ম্যাচ অপরাজিত ছিল দলটি।
অ্যানফিল্ডে মার্সিসাইড ডার্বিতে গত ২০ বছর ধরে একক আধিপত্য দেখাচ্ছে লিভারপুল। নিজেদের মাঠে সবশেষ তারা এভারটনের কাছে হেরেছিল ১৯৯৯ সালে। এরপর ১৯ ম্যাচে ১০ জয় আর ৯টিতে ড্র করেছে অলরেডরা। আর হোম-অ্যাওয়ে মিলিয়ে এভারটনের বিপক্ষে শেষ ১৭ লীগ ম্যাচে হারেনি লিভারপুল। ১০ জয় আর ৭টি ড্র করে তারা। লিভারপুলের চেয়ে ৮ পয়েন্ট পিছিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়ে কোচ ব্রেন্ডন রজার্সের লেস্টার সিটি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর