× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার

ফুটবলে বাঁচা-মরার লড়াই

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার, কাঠমান্ডু (নেপাল) | ৫ ডিসেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৯:২৯

ভুটানের কাছে লজ্জাজনক হারের পর মালদ্বীপ ম্যাচে ঘুরে দাড়ানোর চেষ্টা করে বাংলাদেশ অলিম্পিক ফুটবল দল। মঙ্গলবার ফুটবলারদের ঘুরে দাঁড়ানোর সেই চেষ্টায় বাধ সেধেছিল নেপালের রেফারি কাবিন বাঞ্জানকার। ম্যাচের ১৬তম মিনিটে সাদউদ্দিনের দেয়া নিশ্চিত গোল বাতিল করে দেন স্বাগতিক এই রেফারি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেপালের এই রেফারির গোল বাতিল নিয়ে ট্রলও হয়েছে। ভুটান লজ্জা, রেফারির বির্তকিত সিদ্ধান্ত এসব পাশ কাটিয়ে আজ শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে এসএ গেমসে সোনা জয়ের লড়াইয়ে ফিরতে চায় বাংলাদেশ। জামালদের বাঁচা মরার লড়াই শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল সোয়া পাঁচটায়। এসএ গেমস ফুটবলে এবার দল পাঁচটি। এমনিতেই ফুটবলে বাংলাদেশের সময়টা ভালোই যাচ্ছিল।
তার ওপর গেমসে নেই ভারত। নেই পাকিস্তানও। দক্ষিণ এশিয়ার এই গেমস ফুটবলে তাই স্বর্ণের প্রত্যাশাও অনেকে বেড়ে যায় বাংলাদেশের। ফেভারিটের তকমা নিয়ে কাঠমান্ডু এসেছে বাংলাদেশ ফুটবল দল। ভুটান ম্যাচের আগেও আত্মবিশ্বাসে টইটুম্বুর ছিল ফুটবলাররা। কিন্তু শুরুটা হয় যাচ্ছেতাই! ২০১৬ সালে থিম্পুতে ভুটানের কাছে হারের পর একটা ঝড় বয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের ফুটবলের ওপর দিয়ে। তিন বছর পর সেই ভুটান আবারও ফুটবলকে দিলো বড় ধাক্কা। ভুটান থাক্কা কাটিয়ে উঠতে যে মানসিকতার প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের, তা মালদ্বীপ ম্যাচে ছিল অনুপস্থিত। তারপরেও ওই ম্যাচে জয়ের সুযোগ তৈরি করে দল। কিন্তু রেফারির ওই সিদ্ধান্ত হতাশ করেছে। তবে এই হতাশা আজ কাটিয়ে উঠতে চায় বাংলাদেশ। থামালের টিম হোটেলে সে কথাই জানিয়েছেন দলের কোচ জেমি ডে। তার বিশ্বাস আজ শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েই তার ছেলেরা লড়াই ফিরবে। এ ম্যাচে শুধু জামালদের জিতলেই চলবে না, তাকিয়ে থাকতে হবে অন্যদের দিকে। শ্রীলঙ্কাকে হারালে চার পয়েন্ট হবে বাংলাদেশের। দুই ম্যাচ জিতে ছয় পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে আছে নেপাল। টিকে থাকতে হলে আগামী ৮ই ডিসেম্বর নেপালকে হারাতে হবে জামাল ভুইয়াদের।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর