× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৮ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার
হাম সংকটে সামোয়া

সরকারি সেবা বন্ধ করে টিকাদান কর্মসূচি চালু

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ১০:১৯

নজিরবিহীন হাম মহামারিতে আক্রান্ত হয়েছে প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপরাষ্ট্র সামোয়া। এখন পর্যন্ত এই রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ৬২ জন। নিহতদের বেশিরভাগই শিশু। মহামারী সামাল দিতে বৃহস্পতিবার দুই দিনের জন্য ‘পরিহার্য- সরকারি সেবা’ বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এই দুইদিন দেশজুড়ে হামের জোরদার টিকাদান কর্মসূচি চালানো হবে। বন্ধ রাখা হয়েছে সকল বাণিজ্য। এ খবর দিয়েছে আল জাজিরা।
খবরে বলা হয়, দেশের নাগরিকদের বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ঘরে থাকতে নির্দেশ দিয়েছে সামোয়া সরকার। যদি কোনো বাড়ির সদস্যদের কেউ টিকা না পেয়ে থাকে তাহলে বাড়ির পাশে লাল পতাকা টানিয়ে রাখতে বলা হয়েছে।
সরকারি টিকাদান টিম তাদের বাড়িতে গিয়ে টিকা দিয়ে আসবে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে টিকাদানকারী কর্মীরা দেশজুড়ে কাজ শুরু করেছে।
আল জাজিরা জানিয়েছে, হাসপাতাল যাওয়া ও বিশেষ অনুমতি ছাড়া কাউকেই গাড়ি চালাতে দেয়া হয়নি এদিন। টিকাদান কর্মসূচি কার্যকর করে তুলতেই এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত মাস থেকেই সামোয়ায় হাম ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। বৃহস্পতিবার সরকার জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে অন্তত ১৬৫ জন নতুন মানুষ এই রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। ৫৪ শিশু সহ মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬২ জনে।
ইউনিসেফের প্রশান্ত মহাসাগরীয় দ্বীপ অঞ্চলের প্রধান শেল্ডন ইয়েট সামোয়া সরকারের উদ্যোগ নিয়ে বলেন, আমি এর আগেও গণ কর্মসূচি দেখেছি। তবে পুরো দেশজুড়ে এরকম মাত্রায় নয়। পুরো দেশজুড়ে টিকা দেয়া হচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর