× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২০ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার

স্ত্রী-সন্তান বাঁচলেও পুড়ে কয়লা আজিম

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে | ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, ৮:১৩

আগুন থেকে স্ত্রী সন্তান বাঁচলেও পুড়ে কয়লা হলেন নুরুল আজিম (৩২) নামে এক যুবক। এ নিয়ে রহস্য দানা বাঁধলেও কোনো রকম অপরাধ সংঘটিত হওয়ার আলামত পাচ্ছেন না পুলিশ। ফায়ার সার্ভিসও বলছে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। শুক্রবার দিবাগত রাত ১টার দিকে চট্টগ্রামের বোয়ালখালী পৌরসভার পশ্চিম গোমদন্ডী গ্রামে পৌর মেয়র আবুল হোসেন আবুর বাড়ির পাশে নিজ বাড়িতে লাগা অগ্নিকান্ডে পুড়ে কয়লা হওয়ার এমন নির্মম ঘটনা ঘটে। বোয়ালখালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মুহম্মদ হেলাল উদ্দীন ফারুকী জানান, নুরুল আলম ও নুরুল আজিম নামে দুই ভাই পরিবার নিয়ে বসবাস করেন। পাশাপাশি দুটি ঘরের একটি বাঁশের বেড়া দিয়ে তৈরি। সেখানে আরেকটি তাদের প্রতিবেশী শাহআলমের নির্মাণাধীন পাকা ঘর। রাত ১টার দিকে লাগা আগুনে এই দুটি ঘর পুড়ে গেছে।
বোয়ালখালী ফায়ার স্টেশন থেকে অগ্নিনির্বাপক দলের কর্মীরা এসে রাত দেড়টায় আগুন নেভায়। পরে ঘরের ভেতরে ফায়ার কর্মীদের তল্লাশিতে নুরুল আজিমের মরদেহ পাওয়া যায়। পুলিশ পরিদর্শক হেলাল উদ্দিন বলেন, নুরুল আজিমের স্ত্রী ও চার বছরের সন্তান নিরাপদে বের হতে পেরেছে। কিন্তু নুরুল আজিম পুড়ে একেবারে কয়লা হয়ে গেছেন। সবাই ঘুমে ছিল। অগ্নিকান্ডের সময় যে যার যার মতো করে বেরিয়ে যান। পরে দেখা যায়, নুরুল আজিম বের হতে পারেননি। বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাতের কথা ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে বলে জানান পুলিশ পরিদর্শক হেলাল। নুরুল আলমও বলেছেন, আগুন লাগার পর স্ত্রী-সন্তানকে নিরাপদে বের করে দিয়ে ঘরের ভেতরে আটকা পড়ে নুরুল আজিম (৩২)। এতে পুড়ে কয়লা হয়ে নির্মমভাবে মৃত্যু ঘটে তার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর