× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৭ জানুয়ারি ২০২০, সোমবার

‘বিনোদন নয়, জেতার জন্য খেলি’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, ৯:২৩

টি-টোয়েন্টি মানেই চার-ছক্কার ধুন্ধুমার লড়াই। এক কথায় ক্রিকেট বিনোদনের পরিপূর্ণ প্যাকেজ। আন্দ্রে রাসেল, ক্রিস গেইলরা এই বিনোদনের ফেরিওয়ালা। তবে কিছু কিছু ব্যাটসম্যান খেলেন দলের প্রয়োজনে। বিনোদন নয়, জেতাই তাদের মূল লক্ষ্য। এমন ব্যাটসম্যানের প্রকৃষ্ট উদাহরণ বিরাট কোহলি। শুক্রবার মারকুটে ব্যাটসম্যানের দল ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেই যিনি খেলেন ম্যাচজয়ী ইনিংস। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৫০ বলে ৯৪ রানে অপরাজিত থাকেন কোহলি।
লোকেশ রাহুল করেন ৪০ বলে ৬২ রান। তাতে ২০৮ রানের লক্ষ্য ৮ বল হাতে রেখে টপকে যায় ভারত। অথচ প্রথম ৩৪ বলে কোহলি করেছিলেন ৪৪ রান। পরের ৫০ রান আসে মাত্র ১৬ বল থেকে। ম্যাচের পর কোহলি বলেন, ‘বুঝতে পারছিলাম যে, আমি মারকুটে ব্যাটসম্যান নই। টাইমিংই আমার মূল শক্তি। তাই খেলার ধরন বদলে নেই। আমি তেমন কেউ নই, যে কি না আকাশে ভাসিয়ে বড় শট খেলার মাধ্যমে সবাইকে বিনোদন দিয়ে থাকে। মারকুটে ব্যাটিং করা আমার লক্ষ্যও নয়। আমার প্রধান লক্ষ্য দলের চাহিদা পূরণ করা। আর সবসময়ই আমি জিততে চাই।’ টি-টোয়েন্টিতে এটি কোহলির সেরা ব্যক্তিগত ইনিংস। ৭৩ টি-টোয়েন্টিতে পঞ্চাশোর্ধ ইনিংস তার ২৩টি। গড় ৫১.৯২! স্ট্রাইকরেটও ভালো- ১৩৬.৭। নটআউট থেকেছেন ১৯ বার। পেশীশক্তি ছাড়াও যে টি-টোয়েন্টির সেরা ব্যাটসম্যান হওয়া যায় কোহলিই তার বড় প্রমাণ। ম্যাচসেরার পুরস্কার হাতে নেয়ার সময় ভারতীয় অধিনায়ক বলেন, ‘তরুণ ব্যাটসম্যানদের বলবো, আমার ইনিংসের প্রথম অর্ধেক অনুসরণ করো। আমি খুব বাজে ব্যাট করেছি তখন। আমি (লোকেশ) রাহুলের ওপর চাপ দিতে চাইনি কিন্তু তা করতেও পারিনি। তবে এরপর হোল্ডারের ওভারটা পাওয়ায় ভালো হয়েছে। সেখান থেকেই আমি বুঝতে শুরু করি যে কী ভুলগুলো করছিলাম।’ হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। নির্ধারিত ২০ ওভারে ২০৮/৫ সংগ্রহ করে দুইবারে টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়নরা। ৪১ বলে ৫৬ রান করেন শিমরন হেটমায়ার। ওপেনার এভিন লুইসের ব্যাট থেকে আসে ১৭ বলে ৪০ রান। কাইরন পোলার্ডও ১৯ বলে ৩৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন। শেষ দিকে জেসন হোল্ডার ৯ বলে ২৪ রানে অপরাজিত থাকেন। ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন যুজবেন্দ্র চাহাল। ওয়াশিংটন সুন্দর, দীপক চাহার ও রবীন্দ্র জাদেজা প্রত্যেকের শিকার এক উইকেট। আজ কেরালার গ্রিনফিল্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হচ্ছে দুই দল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর