× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ৩০ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার
মঞ্চ মাতাবেন সালমান-ক্যাটরিনা

বঙ্গবন্ধু বিপিএল-এর ‘উৎসব’ আজ

খেলা

ইশতিয়াক পারভেজ | ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, ৯:২৪
মিরপুর স্টেডিয়ামে বিপিএল-এর উদ্বোধনী মঞ্চের প্রস্তুতি

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে গতকাল প্রবেশ করতেই চোখে পড়লো বিশাল আয়োজন। চলছে হাজার মানুষের রান্নাবান্না। খোঁজ নিয়ে জানা গেলো রাতে যারা মাঠে মঞ্চ প্রস্তুত করবেন তাদের জন্যই এই আয়োজন। মাঠে প্রবেশ করতেই দেখা গেল প্রস্তুত হচ্ছে বিশাল মঞ্চ।  যেখানে নাচবেন ভারতের সুপার স্টার সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফ। অন্যদিকে সেনাবাহিনী, র‌্যাব, পুলিশের বিশেষ দল ডগ স্কোয়াড নিয়ে সারা স্টেডিয়াম চষে বেড়াচ্ছে। হ্যাঁ, রাত পোহালেই বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের বিশেষ আসর ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’-এর উদ্বোধনী। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী আগামী বছর। আর বিপিএল-এর এই আসর দিয়েই শুরু হচ্ছে  ‘মুজিববর্ষের’ উৎসব।
যার উদ্বোধন করবেন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আগামীকাল বিকাল সাড়ে চারটায়। প্রধানমন্ত্রীর আগমনের কারণেই নেয়া হচ্ছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। এরই মধ্যে বিপিএল-এর ৮ম আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সব টিকিট বিক্রি হয়ে গেছে। তবে মাঠের লড়াই শুরু হবে ১১ই ডিসেম্বর। গতকাল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামুদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘এটি সাধারণ কোনো উদ্বাধনী অনুষ্ঠানের মতো হচ্ছে না। মূলত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন ঘোষণা করলেই শুরু হবে কনসার্ট। তার ভাষণের আগে ও পরে দুই ভাগে দেশি ও বিদেশিরা মঞ্চে পারফরম্যান্স করবেন।’

এবারের বঙ্গবন্ধু বিপিএল-এ অংশ নিচ্ছে সাতটি দল। কুমিল্লা ও রংপুর দল সরাসরি পরিচালনা করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। সব দলের ক্রিকেটার ও কর্মকর্তাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিসিবির সিইও নিজামুদ্দিন চৌধুরী। তবে সাধারণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মতো তারা মাঠে নিজেদের দলের পতাকা হাতে দাঁড়াবেন না। তিনি বলেন, ‘প্রতিটি দলকেই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ক্রিকেটাররা সাধরণত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পতাকা নিয়ে মাঠে থাকেন, এবার তা হবে না। তারা এসে কনসার্ট উপভোগ করবেন।’ অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসার বিষয়টি আরো একবার নিশ্চিত করেন বিসিবির সিইও। বলেন, ‘আমাদের বিশেষ আয়োজন বঙ্গবন্ধু বিপিএল-এর উদ্বোধন করতে প্রধানমন্ত্রী সম্মত হয়েছেন। তিনি বিপিএল-এর এই আসরের উদ্বোধন করবেন।’  
বিপিএল-এর এই কনসার্টে মঞ্চ মাতাবেন বাংলাদেশের কণ্ঠশিল্পী মমতাজ-জেমস থেকে শুরু করে বলিউড অভিনেতা সালমান খান, ক্যাটরিনা কাইফ, ভারতীয় গায়ক সোনু নিগম ও কৈলাশ খের। উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মাঠে বসেও দেখা যাবে। সেজন্য গুনতে হবে ১০ হাজার টাকা। এছাড়া মাঠের মধ্যেই মঞ্চ থেকে খানিক দূরে বসে দেখার জন্য গুনতে হবে ৫ হাজার টাকা। এছাড়া উল্টো দিকের ক্লাব হাউজ ও গ্র্যান্ড স্ট্যান্ড থেকেও দেখা যাবে, তবে সেটা মঞ্চ থেকে অন্তত দেড়শ গজেরও বেশি দূরে। দর্শকদের সুবিধার্থে মাঠেই বসানো হয়েছে ৯টি জায়ান্ট স্ক্রিন। এছাড়াও ডান দিকে বসানো আরও জায়ান্ট তিনটি স্ক্রিনে দেখা যাবে পুরো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

গতকাল সন্ধ্যার ঠিক আগে মাঠে আসেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি বিসিবি’র অন্য কমকর্তা ও নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে গোটা মাঠ ও মঞ্চ ঘুরে দেখেন। বিপিএল-এর আগের তিন আসরে হয়নি কোনো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। সবশেষ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মঞ্চ মাতিয়ে গেছেন ভারতের সুপার স্টার ঋত্মিক রওশন। অন্যদিকে আজ সকালেই বাংলাদেশের মাটিতে পা রাখবেন ভারতীয় চলচ্চিত্রের সুপার হিরো সালমান খান। সকাল ৮টায় বিশেষ বিমানে তার সঙ্গে আসছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফ। দুপুর ২টায় আসবেন ভারতের সংগীত তারকা  সোনু নিগম। গতকাল বিকালেই ঢাকায় পৌঁছেন ভারতের সংগীতের আরেক ক্রেজ   কৈলাশ খের।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কে কখন মঞ্চ মাতাতে উঠবেন তা নিয়ে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শেখ সোহেল। তিনি বলেন, ‘কাল ৫টায় বাংলাদেশের শিল্পীদের দিয়ে শুরু করবো অনুষ্ঠান। ৬টায় জেমস সংগীত পরিবেশন করবেন। সাড়ে ৬টায় মমতাজ আপা। সাতটায় পিএম এসে এটা উদ্বোধন করবেন।  সোনু নিগাম মঞ্চে উঠবেন সোয়া ৭টায়। পরে কৈলাশ খের। এরপর সাড়ে ৮টায় ক্যাটরিনা কাইফ। এবং সবার শেষে সালমান খান।  অনুষ্ঠানের ব্যাপ্তি হবে রাত সাড়ে ১০টা থেকে ১১টা।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর