× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২০, বুধবার

সিরাজগঞ্জে আ’ লীগ-বিএনপি সংঘর্ষে আহত ৪০

অনলাইন

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি | ৮ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, ৩:৩৭

সিরাজগঞ্জে আওয়ামীলীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ৪০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। আজ রোববার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে শহরের ইবি রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। প্রায় দুই ঘন্টাব্যাপী এ সংঘর্ষের ঘটনায় আওয়ামীলীগ ও বিএনপি একে অপরকে দায়ী করেছেন।

সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের আহবায়ক ও উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন জানান, আজ সকাল ১১টার দিকে সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের উদ্যোগে একটি বিজয় র‌্যালী বের হয়। সিরাজগঞ্জ-২ আসনের এমপি প্রফেসর হাবিবে মিল্লাত মুন্নাসহ মুক্তিযোদ্ধারা নেতৃত্ব দেন।  শান্তিপূর্ণ র‌্যালীটি ইবি রোড এলাকায় পৌছলে পিছন থেকে বিএনপির নেতাকর্মীরা মিছিলে হামলা করে। এতে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সোহাগ, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি মামুনুর রশিদ, ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রাসেল, যুবলীগ কর্মী সালমান, শামীম, শুকুরসহ অন্তত ২০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

এদিকে জেলা বিএনপির যুগ্ন সম্পাদক হারুন অর রশিদ হাসান অভিযোগ করে জানান, সকাল ১১টার দিকে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জেলা বিএনপি পুরাতন শহীদ মিনার থেকে বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে পৌর ভাসানী মিলনায়তনের মুক্ত মঞ্চে শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করছিল।
এসময় মিছিল সহকারে ঘটনাস্থলে পৌছলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে শান্তিপূর্ণ সমাবেশে হামলা চালায়। তাদের প্রতিরোধ করতে গেলে উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। প্রায় দুই ঘন্টাব্যাপী এ সংঘর্ষ চলে। এতে ইটপাটকেল ও পুলিশের টিয়ার শেলের আঘাতে জেলা বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম হোসেন হিটলার, যুবদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল আব্বাস, ছাত্রদলের জুলমত, নাদিম, রানা, ছোট সবুজ, রতন, সাবিব, যুবদলের নয়ন, খোকন, মীম, ইমরান, স্বেচ্ছাসেবক দলের সালাউদ্দিনসহ অন্তত ২০-২২ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবু ইউসুফ জানান, বিজয় র‌্যালী থেকে সংঘর্ষ শুরু হয়। পুলিশ টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। তবে কি কারণে সংঘর্ষের সূত্রপাত তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

এদিকে সংঘর্ষের ঘটনার পর সিরাজগঞ্জ-২ আসনের এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর হাবিবে মিল্লাত মুন্না সংবাদ সন্মেলন করে ঘটনার জন্য বিএনপিকে দায়ী করেছেন। দুপুর ২টার দিকে সিরাজগঞ্জ সরকারী কলেজ চত্বরে আয়োজিত সংবাদ সন্মেলনে হাবিবে মিল্লাত মুন্না বলেন, বিজয়ের মাসে সরকারী কলেজের আয়োজনে মুক্তিযোদ্ধা, ছাত্র-জনতার বিজয় র‌্যালী বের করা হয়েছিল। র‌্যালীর পিছন থেকে বিএনপি নেতাকর্মীরা পরিকল্পিতভাবে হামলা চালিয়েছে। তারা যে স্বাধীনতার বিপক্ষ শক্তি এ হামলা তারই প্রমান।  

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর