× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৮ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার

রূপগঞ্জে পৌরসভার প্যানেল মেয়রকে কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হত্যার হুমকি

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) থেকে | ৯ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৮:২৬

 রূপগঞ্জে কাঞ্চন পৌরসভার প্যানেল মেয়র পনির হোসেন মিয়াকে কাফনের কাপড় পাঠিয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার সকালে উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার বিবার এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। এদিকে ঘটনার পর থেকে চরম আতঙ্কে ও নিরাপত্তাহীনতা রয়েছে প্যানেল মেয়র ও তার পরিবারের লোকজন।
প্যানেল মেয়র পনির মিয়া জানান, তিনি কাঞ্চন পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ড থেকে নির্বাচিত কাউন্সিলর ও পৌরসভার প্যানেল মেয়র। তিনি নিজ এলাকায় ইটভাটার ব্যবসা করে আসছেন। শনিবার সকালে তার মালিকানাধীন মেসার্স এআরবি ইটভাটার ভিতরে একটি ব্যাগের ভিতরে কাফনের কাপড় দেখতে পেয়ে প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার ফোন করে ঘটনাটি তাকে জানান। তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে কাফনের কাপড় খুলে দেখেন এতে লেখা আছে ‘এলাকায় বেশি বাড়াবাড়ি করলে তাকেসহ তার লোকজনদের একজন করে জীবনে মেরে ফেলবে’ বলে হুমকি প্রদান করা হয়েছে। এ ঘটনা তিনি রূপগঞ্জ থানা পুলিশকে অবহিত করেন। তিনি আরো বলেন, কাঞ্চন পৌরসভার নির্বাচনের সময় তার প্রতিপক্ষের লোকজন নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য একই কায়দায় কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হুমকি প্রদান করে।
অন্যদিকে তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি মোতাবেক গত কয়েকদিন আগে তিনি এলাকায় মাদক নির্মূলের ব্যাপারে সোচ্চার হোন। মাদক ব্যবসায়ীদের মাদক ব্যবসা ছেড়ে দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করেছিলেন ও কয়েকজনকে শাসন করেছেন। এরই জের ধরে মাদক ব্যবসায়ীরা তাকে মিথ্যা মামলায় জড়ায়। মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়ায় এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী আলমগীর, মিথুন, মামুন, নুরে আলম, মনির, মজিবুরসহ কতিপয় ব্যক্তি কাফনের কাপড় পাঠিয়ে হত্যার হুমকি প্রদান করেছেন বলে ধারণা তার। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত আলমগীর হোসেনের মুঠোফোনে বহুবার চেষ্টা করেও যোগাযোগ করা যায়নি। এ ব্যাপারে ভোলাব উপ-তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শফিকুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর