× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ঢাকা সিটি নির্বাচন- ২০২০ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২০, বুধবার

বিজয় দিবসে কোটি টাকা ফুল বিক্রির আশা কালীগঞ্জের চাষিদের

বাংলারজমিন

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, রবিবার, ৮:১৮

ফুল ভালোবাসে না এমন কেউ নেই। তাই বছরজুড়ে কম বেশি চাহিদা থাকে  বর্তমানে ফুলের ভরা মৌসুম। ফুলের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। ১৬ই ডিসেম্বর  মহান বিজয় দিবসে  ফুলের  ব্যাপক চাহিদা দেশজুড়ে দিবসটি  উপলক্ষে কোটি টাকা লাভের আশা করছেন ঝিনাইদহের  কালীগঞ্জের  ফুলচাষিরা।
কালীগঞ্জ উপজেলায় ফুল চাষে এবার নীরব বিপ্লব ঘটেছে কৃষিকাজের  পরিবর্তে ফুল চাষকে পেশা হিসেবে নিয়ে  ভাগ্য পরিবর্তন করেছেন অনেক কৃষক। কালীগঞ্জ উপজেলার শতাধিক কৃষক এ ফুল চাষের সঙ্গে জড়িত। এখানে উৎপাদিত গাঁদা ফুলের ওপর নির্ভর করতে হয় রাজধানীর শাহ্‌বাগের ফুলের  বাজার, সিলেট, চট্টগ্রামসহ দেশের  ফুল ব্যবসায়ীদের। দিন দিন এখানকার ফুলের  চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে।
ঝিনাইদহ কৃষি অফিসসূত্রে জানা গেছে, জেলার ৬ উপজেলার প্রায় ২৫০ হেক্টর জমিতে নানা জাতের ফুল চাষ হয়েছে সবচেয়ে বেশি ফুল চাষ হচ্ছে কালীগঞ্জ উপজেলার ফুলপল্লী নামে খ্যাত বালিয়াংগা,  এলোচনপুর, কোলা ও নলডাঙ্গাসহ বিভিন্ন গ্রামে।
চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় ফুল চাষ হয়েছে ১শ’ হেক্টর  জমিতে।
বেলেডাংগা গ্রামের ফুলচাষি মোতালেব হোসেন বলেন, এক বিঘা জমিতে ফুল চাষ করতে খরচ হয় ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা। ভালো দাম পেলে লাভ হয় প্রায় একলাখ টাকা। এজন্য ফুলচাষের হার দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।
কালীগঞ্জ কৃষি র্কমর্কতা জাহিদুল করিম বলেন, আমরা প্রতিনিয়ত কৃষকদের  ফুল চাষ সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকি, এর ফলে সঠিকভাবে ফুল চাষ করে লাভবান হচ্ছেন কৃষকরা।
কালীগঞ্জ কৃষি কর্মকর্তা জাহিদুল করিম বলেন,  এবার ফুল চাষে ব্যাপক সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে স্থানীয় ফুল বাজারগুলোতে প্রতিদিন বিপুল পরিমাণ ফুল বিক্রি হচ্ছে।  যা রাজধানীসহ দেশের  বিভিন্ন  স্থানে ফুল বাজারে চাহিদা পূরণ করছে।
অসময়ে ফুল সংরক্ষণের ব্যবস্থা করা হলে কৃষকরা ফুল চাষের মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জনে বড় ধরনের ভূমিকা রাখতে পারবেন বলে মনে করেন ফুলচাষিরা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর