× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার

নাগরিকত্ব আইন বাতিলের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে কেরালা সরকার

বিশ্বজমিন

কলকাতা প্রতিনিধি | ১৬ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৯:২৩

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) প্রত্যাহারের দাবিতে কেরালা বিধানসভায় প্রস্তাব পাস করানোর পর এবার কেরালা সরকার এই আইনকে বাতিলের দাবিতে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছে। অবশ্য ইতিমধ্যেই সিএএ’র বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে ৫৯টি মামলা জমা পড়েছে। বিভিন্ন রাজ্যের হাইকোর্টেও একাধিক মামলা হয়েছে। তবে এই প্রথম কোনো রাজ্য সরকার এই আইনের সাংবিধানিক বৈধতাকে  চ্যালেঞ্জ করে আদালতে মামলা করেছে।  কেরালার বাম সরকারের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন বলেছেন, সংবিধানের মর্যাদা রক্ষায় বাকি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদেরও একই রকম পদক্ষেপ করতে অনুরোধ করছি। এর আগে এ বিষয়ে অন্য মুখ্যমন্ত্রীদের চিঠিও লিখেছেন তিনি। সুপ্রিম  কোর্টে দায়ের করা মামলায় কেরালা সরকারের মূল বক্তব্য, সিএএ সংবিধানের মৌলিক অধিকারের বিরোধী, অযৌক্তিক এবং অসঙ্গত। কিন্তু তা সত্ত্বেও সংবিধানের ২৫৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী রাজ্য সরকার কেন্দ্রের এই আইন মানতে বাধ্য। তাই সিএএকে ‘অসাংবিধানিক’ বলে খারিজ করা হোক।
কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে বিবাদ হলে সংবিধানের ১৩১ অনুচ্ছেদে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে সুপ্রিম কোর্ট তাতে হস্তক্ষেপ করতে পারে। কেরালা সরকারের মতে, সিএএ সংবিধানের চতুর্দশ অনুচ্ছেদে প্রদত্ত সমানাধিকার, ২১তম অনুচ্ছেদে প্রদত্ত জীবন ও ব্যক্তি স্বাধীনতার অধিকার এবং ২৫তম অনুচ্ছেদে প্রদত্ত ধর্মাচরণের অধিকারের পরিপন্থি। এই আইন সংবিধানের মূল ভাবনা ধর্মনিরপেক্ষতারও বিরোধী। তবে বিজেপি মুখপাত্র জি ভি এল নরসিংহ রাও বলেছেন, কেরালা সরকার বুঝতে  পেরেছে বিধানসভায় প্রস্তাব পাস করা ভুল হয়েছে। তাতে কোনো লাভ হবে না। তাই সুপ্রিম  কোর্টে মামলা করে তারা অবশেষে পরিণতিবোধ  দেখিয়েছে। এদিকে সুপ্রিম কোর্ট ১৮ই ডিসেম্বর   কেন্দ্রীয় সরকারের বক্তব্য জানতে চেয়ে নোটিশ জারি করেছে। ২২শে জানুয়ারি এই মামলার শুনানি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর