× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শুক্রবার

মন্ত্রিত্বের প্রথম বছরে সিলেট উন্নয়নের কথা জানালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ১৮ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার, ৮:৪২

মন্ত্রিত্বের প্রথম বছরে সিলেট উন্নয়নের অনেক কথাই জানালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। আগামীর সিলেট নিয়ে তার উন্নয়ন ভাবনাও তুলে ধরলেন। জানালেন- সিলেট-ঢাকা রুটে নতুন ট্রেন নামছে। সংযুক্ত হচ্ছে এসি বগিও। সিলেট-ঢাকা রুট ৬ লেনের কাজ শুরু হবে। সিলেট বিমানবন্দরের গ্রাউন্ড উন্নয়নে ৩ হাজার কোটি টাকার কাজ চলছে। এরপরও অনেক কাজ বাকি। 
প্রস্তাবনা তৈরি করে উন্নয়নের জন্য কাজ করতে হচ্ছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিলেট উন্নয়নে তার এক বছরের ফিরিস্তি গতকাল সিলেটের সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তুলে ধরেন।
এ সময় সিলেট আওয়ামী লীগের নেতারা এবং প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পররষ্ট্রমন্ত্রী তার মেয়াদে সিলেটে চলমান মেগা প্রকল্পগুলোর উল্লেখ করে বলেন, সিলেটে একটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য জায়গা ইতোমধ্যে নির্ধারণ করা হয়েছে।

শিগগিরই জমি অগ্রিহণের কাজ শুরু হবে। এছাড়া পুরো সিলেটকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে যার মাধ্যমে সিলেটে অপরাধের মাত্রা উল্লেখযোগ্য হারে কমিয়ে আনা সম্ভব হবে। একইসঙ্গে সিলেটকে ডিজিটাল সিটি হিসেবে প্রতিষ্ঠা করার ক্ষেত্রে ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম শেষ করা হয়েছে। নাগরিক সেবার মান বৃদ্ধি করার ক্ষেত্রে যে কোনো সেবার জন্য ৩৩৩-এ কল করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রী সিলেট সিটি করপোরেশনকে ১২শ’ কোটি টাকা বরাদ্ধ দিয়েছেন। যা এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ বরাদ্ধ। সিলেটের সৌন্দর্যবর্ধন এবং জলাবদ্ধতা দূরীকরণে যা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। সিলেটে শিক্ষার মান উন্নয়নে এক সঙ্গে ৬০টি নতুন ভবন নির্মাণ ও সম্প্রসারণের কাজ চলছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ১২৮টি কলেজে আড়াই থেকে ৮ কোটি টাকা পর্যন্ত অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এছাড়া শাহপরান দরগাহে দৃষ্টিনন্দন করা, সুরমা নদী উদ্ধার, সিলেটের ট্রাক ও বাস টার্মিনালকে নতুনভাবে আধুনিকায়ন করার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এসব মেগা প্রকল্প ছাড়াও সিলেটের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, সৌন্দর্যবর্ধন ও অবকাঠামো উন্নয়নে চলমান উন্নয়ন কর্মকান্ডের বর্ণনাও সংবাদ সম্মেলনে তুলে ধরেন মন্ত্রী।

গত একবছরে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালে ব্যাপক উন্নয়ন করা হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ক্যজুয়ালিটি বিভাগ চালু করা, নতুন পরিসরে ইমার্জেন্সি বিভাগ চালু, নতুন এন্ডোক্রাইনোলজি বিভাগ চালু, নতুন আরেকটি মেডিসিন ওয়ার্ড চালু, আইসিইউ-২ নামে নতুন আরেকটি আইসিইউ বিভাগ চালু, অত্যাধুনিক সুবিধা সম্বলিত নতুন একটি সিটিস্ক্যান মেশিণ চালু, নবজাতকের জন্য বিশেষ পরিচর্যা কেন্দ্র চালু, বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট চালু এর মধ্যে অন্যতম। মতবিনিময়কালে আব্দুল মোমেন আরও বলেন, বাংলাদেশ এখন আর তলাবিহীন দেশ নয়, এখন ল্যান্ড অব অপরচুনিটি (সম্ভাবনার দেশ)। এই মুজিববর্ষে সারা বিশ্বকে আমরা তা জানান দিতে চাই। এজন্য বিশ্বজুড়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন করা হবে। ইতোমধ্যে ইউনেস্কো যৌথভাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালনে সম্মত হয়েছে। পররাস্ট্র মন্ত্রণালয় বিভিন্ন দেশের দূতাবাসে ৩০০টি অনুষ্ঠান করবে বলে জানান মন্ত্রী। বিমানবন্দরে প্রবাসী যাত্রীদের হয়রানি বন্ধে প্রত্যেক বিমানবন্দরে সিসি ক্যামেরা বসানো হবে বলে জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, প্রবাসীদের সেবা দিতে প্রতিটি মিশনে একটি এপস চালু হবে।

যে এপসের মাধ্যমে প্রবাসীরা ৩৩টি সেবা পাবেন। ইতিমধ্যে ৫৮টি মিশনে এটি চালু করা হয়েছে। এছাড়া প্রবাসীদের জীবনমান উন্নয়নে মিশনের মাধ্যমে তাদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে। যাতে তারা আরও বেশি আয় করতে পারেন। সংবাদ সম্মেলনকালে সিলেটের জেলা প্রশাসক কাজী এমদাদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুক উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর