× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শনিবার

‘অর্থ’ পুরস্কার বিষয়ে যা বললেন মুশফিক-রাসেল

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৯ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, ৮:৫২

গতবার চ্যাম্পিয়ন দল ২ কোটি টাকা প্রাইজমানি পেয়েছে। তবে এবার বিপিএল’র ফাইনালে শিরোপাজয়ী দলকে দেয়া হয়নি কোনো প্রাইজমানি। আয়োজকদের যুক্তি ছিল এবার টুর্নামেন্ট ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক না হওয়ায় প্রাইজমানি রাখা হয়নি। সংবাদ সম্মেলনে এ প্রসঙ্গে কথা বলেছেন চ্যাম্পিয়ন রাজশাহী রয়্যালস দলের অধিনায়ক আন্দ্রে রাসেল। আর দেশি  ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক নিয়ে কথা বলেন খুলনা টাইগার্স অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। ফাইনাল শেষে এক প্রশ্নের জবাবে রাজশাহী রয়্যালস অধিনায়ক দাঁড়ালেন দলের স্থানীয় ক্রিকেটারদের পাশে। রাসেল বলেন, ‘ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে প্রাইজমানি এমন একটি বিষয় যা খেলোয়াড়েরা পেতে চায়, সঙ্গে বোনাসও। আমার কাছে, টুর্নামেন্টের শিরোপা জেতাই সবকিছু।
এটা হয়তো এমন শোনাবে যে, আমি টাকা পছন্দ করি না। তবে আমি চাই যে যেসব স্থানীয়রা (ক্রিকেটার) আমাদের সাহায্য করেছে, তাদের যেন বোনাস দেয়া হয়। তাদের যত্ন নেয়া হলেই আমরা খুশি।’ আর ফাইনাল শেষে খুলনা টাইগার্সের অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম বলেন, ‘আইপিএলের পর এটি বিশ্বের সেরা লীগগুলোর একটি। নাম যদি বলেন, এখানে অনেক বড় বড় ক্রিকেটার খেলেন। বিশ্বমানের ক্রিকেটারদের সঙ্গে খেলে আমাদের অনেক উন্নতি হয়েছে। এবার উইকেটগুলো ভালো ছিল। স্থানীয় ক্রিকেটাররা ভালো করেছে। অনেক ইতিবাচক দিক আছে। পরের মৌসুম থেকে যদি আমাদের পারিশ্রমিক আরেকটু বাড়ে, তাহলে আরও ভালো কিছু হবে আশা করি।’ দেশের ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক বাড়ানোর যৌক্তিকতা মুশফিক আগেও তুলে ধরেছেন। এবার নিলামে দেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে ওপরের ক্যাটাগরিতে থেকে তিনি পেয়েছেন ৫০ লাখ টাকা। অথচ একই শ্রেণিতে থাকা একজন বিদেশি ক্রিকেটার পেয়েছেন এক লাখ ডলার বা প্রায় ৮৪ লাখ টাকা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর