× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শুক্রবার

রাজ দায়িত্ব, পদবি ছাড়লেন হ্যারি ও মেগান

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, ১২:০৩

বৃটেনের রাজ পরিবারের দায়িত্ব পালনে আর সরকারি অর্থ পাবেন না প্রিন্স হ্যারি ও তার স্ত্রী মেগান মার্কেল। এছাড়া রাজপদবিও ব্যবহার করতে পারবেন না তারা। আনুষ্ঠানিকভাবে রাণীর প্রতিনিধিত্বও করবেন না এই রাজ দম্পতি। বাকিংহাম পেলেস এক ঘোষণায় এমনটা জানিয়েছে। ঘোষণাগুলো চলতি বছরের বসন্ত থেকে কার্যকর হবে। সোমবার এই দম্পতির ভবিষ্যৎ ভূমিকা নিয়ে আলোচনার পর এ ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়, গত  ৮ জানুয়ারি প্রিন্স হ্যারি ও মেগান এক ঘোষণায় জানান, তারা রাজপরিবার থেকে বেরিয়ে স্বাধীন জীবন যাপন করতে চান। রাজ পরিবার থেকে অর্থ গ্রহণ করবেন না বলেও জানান তারা।
এর বদলে নিজেরা আর্থিকভাবে স্বাধীন হওয়ার জন্য কাজ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই দম্পতি। এ ছাড়া, তাদের শিশু সন্তান নিয়ে জীবন যাপনে জন্য বৃটেন ও উত্তর আমেরিকায় ভাগাভাগি করে সময় কাটাতে চান বলে জানিয়েছেন তারা।

রাজপদবি ও দায়িত্ব ছাড়লেও বৃটেনে অবস্থানকালীন সময়ে ফ্রগমোর কটেজেই অবস্থান করবেন হ্যারি-মেগান দম্পতি। কটেজটির সংস্কারে খরচ হওয়া ২৫ লাখ পাউন্ড ফেরত দিয়ে দেবে তারা।
এদিকে, তাদের সিদ্ধান্ত নিয়ে শনিবার রানির পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কয়েক মাসের কথাবার্তা এবং সাম্প্রতিক আলোচনার ভিত্তিতে রানি মনে করেন, তার নাতি এবং তার পরিবার পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে এগিয়ে যাবে। রানি বলেন, ‘হ্যারি-মেগান ও তাদের সন্তান আর্চি সব সময় আমার পরিবারের অতি আপনজন হয়ে থাকবে।’

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Md. Harun Al-Rashid
১৯ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, ১:৪০

কৃষক কন্যা সিমসনকে ভালবেশে যে রাজপুত্র রাজ পরিবার ছেড়ে বেরিয়ে গিয়ে ছিলেন তাঁর খোঁজ আমৃত্যু কেউ রাখেনি। হ্যারি ও মেগানের জন্য সে ভাগ্যই হয়তো অপেক্ষা করছে।

অন্যান্য খবর