× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শনিবার

‘ওই মহিলাকে ৪ দিন ধর্ষকদের সঙ্গে জেলে রাখা উচিত’

এক্সক্লুসিভ

মানবজমিন ডেস্ক | ২৪ জানুয়ারি ২০২০, শুক্রবার, ৭:৩৫

 ভারতের সিনিয়র আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিংয়ের কড়া সমালোচনা করলেন এ সময়ের বলিউডের জনপ্রিয় নায়িকা কঙ্গনা রানাউত। তিনি বলেছেন, ইন্দিরা জয়সিংয়ের মতো নারীরা ধর্ষকদের জন্ম দেন। তিনি নির্ভয়া ধর্ষণ মামলায় অভিযুক্তদের সঙ্গে ইন্দিরাকে জেলে রাখার আহ্বান জানান। উল্লেখ্য, আইনজীবী ইন্দিরা বলেছেন, কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী যেমন তার স্বামী রাজীব গান্ধীর খুনিদের ক্ষমা করে দিয়েছেন, ঠিক একই ভাবে নির্ভয়া’র মা আশা দেবীর উচিত তার মেয়ের ধর্ষকদের ক্ষমা করে দেয়া। কিন্তু এমন পরামর্শের ঘোর বিরোধিতা করেছেন আশা দেবী। ভারতের রাজধানী দিল্লিতে চলন্ত একটি বাসের ভেতর গণধর্ষণ করা হয় মেডিকেল পড়ুয়া এক ছাত্রীকে। এরপর তিনি মারা যান। এই ঘটনা নির্ভয়া হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আছে।
ওই ধর্ষণকারীদের ফাঁসির আদেশ হয়েছে। প্রস্তুতিও চলছে। যেকোনো দিন রায় কার্যকর হতে পারে। এমন অবস্থায় আইনজীবী ইন্দিরা ওই মন্তব্য করেছেন। জবাবে ভীষণ ক্ষেপে গিয়েছেন কঙ্গনা রানাউত। তিনি বলেছেন, তার মতো এমন নারীরাই ধর্ষক ও দানবের জন্ম দেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন জি নিউজ।
কঙ্গনা রানাউত বলেন, ওই মহিলাকে ওইসব ধর্ষকের সঙ্গে চারদিন জেলে আটকে রাখা উচিত। তাকে এমন শিক্ষা দেয়া উচিত। তিনি কোন ধরনের মহিলা, যিনি ধর্ষকদের প্রতি সহানুভূতি দেখান? এসব নারীই তো দানবের জন্ম দেন। তারা ওইসব নারী, যাদের ভেতর ভালোবাসায় পূর্ণ, ধর্ষক ও দানবদের প্রতি সহানুভূতি দেখান, তারাই তো এসবের জন্ম দেন। কঙ্গনা রানাউত দাবি তুলেছেন, ধর্ষকদের কাছে বা সমাজের কাছে কঠোর বার্তা দিতে এসব ধর্ষককে প্রকাশ্যে ফাঁসি দেয়া উচিত। তার ভাষায়, আমি মনে করি না এই সব ধর্ষককে নিস্তব্ধতায় ফাঁসি দেয়া উচিত। যদি আপনি উদাহরণই তৈরি করতে না পারলেন তাহলে সর্বোচ্চ শাস্তির অর্থ কি? তাদের ফাঁসি হওয়া উচিত প্রকাশ্যে। এর আগে আইনজীবী ইন্দিরা জয়সিং টুইটে বলেন, আশা দেবীর বেদনাকে আমি পুরোপুরিভাবে বুঝতে পারি। তাই আমার আহ্বান সোনিয়া গান্ধীর উদাহরণকে অনুসরণ করতে। সোনিয়া গান্ধী ক্ষমা করে দিয়েছেন নলিনিকে। তিনি বলেছেন, তিনি নলিনির মৃত্যুদণ্ড চান না। আমরা আপনাদের সঙ্গে আছি। তবে মৃত্যুদণ্ডের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান। তার এমন আবেদনের পর আশা দেবী বলেছেন, আমাকে এমন পরামর্শ দেয়ার জন্য কে এই ইন্দিরা জয়সিং? পুরো দেশ অভিযুক্তদের ফাঁসি চায়। তিনি মানবাধিকারের কথা বলে অর্থ কামাই করছেন। আমি এমন পরামর্শ পছন্দ করি না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর