× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শুক্রবার

হাটহাজারী মাদ্রাসায় ডিজিটাল পাঠদান

বাংলারজমিন

হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি | ২৫ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার, ৭:৪৬

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার অন্যতম দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আল-জামিয়াতুল আহলিয়া দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারীর ‘কিসমুত তাখাস্‌সুস ফী উলূমিল হাদীস’ তথা উচ্চতর হাদিস গবেষণা বিভাগে মাল্টিমিডিয়াা পদ্ধতিতে পাঠদান শুরু হয়েছে। গতকাল বেলা ১১টায় জামেয়ার সিনিয়র উস্তাদদের উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে জামেয়ার উচ্চতর বিভাগে উন্নত বিশ্বের ন্যায় ক্লাসে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার শুরু হলো। ক্লাসের শুরুতে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী মাল্টিমিডিয়াা স্ক্রিনে ‘ইলালুল হাদীসের’ উপর লিখিত কিতাবগুলো দেখেন এবং বর্তমান সময়পোযোগী প্রযুক্তির সদ্ব্যবহারের প্রয়জনীয়তা ও গুরত্ব তুলে ধরেন। তিনি বলেন, মাল্টিমিডিয়াার যত সিস্টেম রয়েছে সবগুলোই মৌলিকভাবে নিষ্কলুষ, খারাপ কিছু নয়। তবে মানুষের অপব্যবহারের কারণেই সমাজে এর খারাপ প্রভাব পরছে। এ সমস্ত খারাপ অগ্রযাত্রাকে রুখে দিয়ে মাল্টিমিডিয়ার সদ্ব্যবহারের মাধ্যমে আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। এ সময় মুফতি জসীম উদ্দীন, মাওলানা আনাস মাদানী, মুফতি আব্দুল্লাহ নাজীব, মাওলানা ড. নুরুল আবসার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এদিকে ক্লাসে প্রযুক্তির ব্যবহারের সুযোগ পেয়ে ছাত্ররা জামিয়া কর্তৃপক্ষের প্রতি, বিশেষ করে উচ্চতর হাদীস বিভাগের সিনিয়র উস্তাদ মুফতি আব্দুল্লাহ নাজীব ও মাওলানা ড. নুরুল আবসারের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।


উল্লেখ্য, মাল্টিমিডিয়াা পদ্ধতিতে কয়েকটি মাধ্যম যেমন ল্যাপটপ, ইন্টারনেট মডেম, প্রজেক্টর, প্রজেক্টর স্ক্রিন ও সাউন্ড সিস্টেম ব্যবহার করে সংশ্লিষ্ট বিষয় শিক্ষার্থীদের সামনে তুলে ধরা হয়। ছবি, গ্রাফিকস প্রভৃতি ব্যবহারের মাধ্যমে বিষয়টি সুন্দর করে উপস্থাপন করা হয় বলে শিক্ষার্থীরা সহজে বুঝতে পারে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর