× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শুক্রবার

তাহিরপুর সীমান্তে দ্রুত এগিয়ে চলছে ৪০ পরিবারের আবাসন প্রকল্প

বাংলারজমিন

তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি | ২৫ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার, ৮:১৭

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর সীমান্তবর্তী এলাকায় দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে উপজেলার ছিন্নমূল ৪০ পরিবারের আবাসন প্রকল্প। এই আবাসন প্রকল্পটি নির্মিত হচ্ছে উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিবিজড়িত ট্যাকেরঘাট এলাকায়। এ আবাসন প্রকল্পে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৬৯ লাখ ৩০ টাকা। এর মধ্যে বসতঘর, রান্নঘর, মানসম্মত ল্যাট্রিনসহ ৬০ লাখ, ছিন্নমূল মানুষের বিনোদনের জন্য একটি মালটিপারপাস হলরুম ৭ লাখ ৯৩ হাজার, বিশুদ্ধ পানির জন্য ১ লাখ ২০ হাজার এবং প্রতিটি ঘরের মালিকদের কবুলিয়াত দলিল বাবত বরাদ্দের জন্য ২০ হাজার টাকা।
সূত্রে জানা যায়, ভূমি মন্ত্রণালয়ের গুচ্ছগ্রাম ২য় পর্যায় (সিভিআরপি) প্রকল্পের অধীনে সরকারি পরিপত্র অনুযায়ী প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি কর্তৃক সংশ্লিষ্ট উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার সভাপতি, সদস্য সচিব সহকারী কমিশনার (ভূমি), আর সদস্যরা হলেন, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের আরডিসি, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা, সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও পুনর্বাসিত পরিবারের একজন প্রতিনিধি।
সূত্রে আরো জানা যায়, ঠিকাদারের মাধ্যমে কাজ হবে না মর্মে ঠিকাদারের মুনাফা, ওভারহেড, ভ্যাট ব্যতীত ইত্যাদি বাবত খরচ বাদ দিয়ে প্রাক্কলন মূল্য ধরা হয়েছে। উক্ত কাজের সমুদয় অর্থ এককালীন অগ্রিম উত্তোলন করা যাবে মর্মে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।
সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, ছিন্নমূল আবাসন প্রকল্পের নির্মাণ কাজের মধ্যে পিলার, ল্যাট্রিন রিং ও স্ল্যাব নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে।
উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান খসরুল আলম বলেন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি ট্যাকেরঘাটে গুচ্ছগ্রামটি দ্রুত নির্মাণ হলে সীমান্ত এলাকার সৌন্দর্য আরো বৃদ্ধি পাবে।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিজেন ব্যানার্জী বলেন, ভূমি মন্ত্রণালয়ের গুচ্ছগ্রাম ২য় পর্যায় (সিভিআরপি) প্রকল্পের নিয়মানুযায়ী কাজটি নির্মাণকাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। এ প্রকল্পের সঙ্গে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের আরডিসি’ও সংযুক্ত রয়েছেন। তিনি বলেন, আশা করি দ্রুত এ কাজটি সম্পন্ন হবে।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর