× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার

কাদিয়ানিদের কাফের ঘোষণার দাবি জালালাবাদ ইমাম সমিতির সমাবেশ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ২৫ জানুয়ারি ২০২০, শনিবার, ৮:৩৫

বিশ্বনবী ও সর্বশেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)। এরপর নবী মিথ্যা নবুওয়াতির দাবিদার পাকিস্তানের কাদিয়ান নিবাসী গোলাম আহমদ কাফির। তার অনুসারীরাও কাফের। গতকাল বাদ জুমা জালালাবাদ ইমাম সমিতি সিলেটের আহ্বানে স্থানীয় কোর্ট পয়েন্টে কাদিয়ানিদের অমুসলিম ঘোষণা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন। মিছিলটি নগরীর কোর্ট পয়েন্ট থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে কোর্ট পয়েন্টে সমাবেশে মিলিত হয়। সমিতির সভাপতি প্রিন্সিপাল হাফিজ মাওরানা মজদ উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে ও সমিতির সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মুহিব্বুর রহমান মিটিপুরীর পরিচালনায় সমাবেশে বক্তারা বলেন- পবিত্র কোরআন মাজীদের সূরায়ে আহযাবের ৪০নং আয়াতে মহান আলাহ পাক বলেছেন, মুহাম্মদ (স.) আলাহ পাকের একমাত্র রাসূল ও সর্বশেষ নবী। গোলাম আহমদ কাদিয়ানি ইয়াহুদিদের দোসর হিসেবে দুনিয়ার লোভে পড়ে কোরআনের বানীকে অস্বীকার করে সে নবী বলে দাবি করে। এমন কি তার কাছে দশ পাড়া কিতাব নাযিল হয়েছে বলেও দাবি করে।
বেশ কিছুদিন যাবত বাংলাদেশেও কতিপয় লোকদের মধ্যে এই সেই ভ্রান্ত মতবাদ মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে ছড়াচ্ছে। সেই অর্থ লোভী সন্ত্রাসীরা চলিত নববর্ষের শুরুতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া খতমে নবুওয়াত মাদ্রাসায় রাতের আঁধারে ছাত্র ও শিক্ষকদের উপর অতর্কিত হামলা করে বহু ছাত্র ও শিক্ষককে আহত করে। বক্তারা সে হামলার সঙ্গে জড়িতদের অনতিবিলম্বে গ্রেপ্তার করে বিচারের দাবি জানান। এই সঙ্গে কাদিয়ানীদের রাষ্ট্রীয়ভাবে কাফির ঘোষণা করে তাদের দখলের সেন্টারগুলোকে মুসলমানদের হাতে সমজিয়ে দেওয়ার জোর দাবি জানানো হয়। মিছিল পূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জালালাবাদ ইমাম সমিতির সিনিয়র সহ সভাপতি মাওলানা ক্বারী মুজাম্মিল হোসাইন চৌধুরী, সহ সভাপতি মাওলানা আব্দুস সুবহান, জয়েন্ট সেক্রেটারী হাফিজ মাওলানা শামসুল ইসলাম, সহ সেক্রেটারি মুফতি মুহি উদ্দিন, হাফিজ মাওলানা শরীফ উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা হোসাইন আহমদ, প্রচার সম্পাদক মুফতি আব্দুলাহ, উলামা পরিষদের জেনারেল সেক্রেটারি মাওলানা আবুল হাসান ফয়ছল, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা শামসুদ্দিন মুহাম্মদ ইলিয়াস, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা হারুনুর রশিদ আল আযাদ, সমিতির প্রকাশণা সম্পাদক মুফতি রশীদ আহমদ, নির্বাহী সদস্য মাওলানা আব্দুশ শহীদ, মাওলানা মুকাদ্দাস, মাওলানা আব্দুল শহীদ, মাওলানা আব্দুস সালাম, একরামুল আজিজ, মোয়াজ্জিন কল্যাণ সমিতির মাওলানা মুহি উদ্দিন প্রমুখ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর