× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার

পুলিশ পরিচয়ে বিয়ে করতে এসে ধরা

বাংলারজমিন

উত্তরাঞ্চল প্রতিনিধি | ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, ৮:১৫

এবার পুলিশ পরিচয়ে বিয়ে করতে এসে পুলিশের হাতেই ধরা পড়েছে ভুয়া পুলিশ শহিদুল ইসলাম। বিভিন্ন বাহিনীর পরিচয়ে একাধিক বিয়ে করার অভিযোগ তার বিরুদ্ধে। গতকাল গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে ওই ব্যক্তি।
গোবিন্দগঞ্জ থানা পুলিশ জানায়, ওই উপজেলার রাখালবুরুজ ইউপির বিষপুকুর এলাকার বাসিন্দা শহিদুল ইসলাম। সে দীর্ঘদিন যাবৎ কখনো সেনাসদস্য, কখনো কখনো র‌্যাব ও কখনো পুলিশ অফিসার হিসেবে পরিচয় দিয়ে একাধিক বিয়ে করে। এ বিষয়ে তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মামলাও আছে। শুক্রবার রাতে মহিমাগঞ্জ ইউনিয়নের বামনহাজরা গ্রামে বামনহাজরা গ্রামে পুলিশ অফিসার সেজে বিয়ে করতে আসে ওই গ্রামের আনিছা বেগম শাপলাকে। আগের বিয়ে ও ভুয়া পুলিশ হিসেবে বিয়ের ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হয়ে যায়।
চতুর শহিদুল জানতে পেরে সে বিয়ের আসর থেকে পালিয়ে আসে গোবিন্দগঞ্জ শহরের মায়ামনি মোড়ে। পুলিশ সেখান থেকে গতকাল দুপুরে তাকে গ্রেপ্তার করে। গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি মেহেদী হাসান জানান, গ্রেপ্তারকৃত শহিদুলের বিরুদ্ধে ভুয়া পুলিশ, সেনা সদস, র‌্যাব পরিচয়ে প্রতারণা করে গোবিন্দগঞ্জে তিনটি ও বিভিন্ন জেলায় আরো দুটিসহ ৫টি বিয়ে করে। পুলিশ তাকে এসব অপকর্মের জন্য দীর্ঘদিন ধরে খুঁজছিল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর