× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, মঙ্গলবার

ঘাটাইলে কৃতী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান

বাংলারজমিন

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি | ২৬ জানুয়ারি ২০২০, রবিবার, ৮:১৫

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় কে, নাগবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে গতকাল শাজাহান আকন্দ ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে প্রতি বছরের ন্যায় এবারো বৃত্তি প্রদান ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। মো. নুরুল ইসলাম মিয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও প্রযুক্তি বিভাগের উপ-সচিব এএসএম শফিউল আলম তালুকদার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাজাহান আকন্দ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও অনুষ্ঠানের উদ্বোধক তরুণ শিল্প উদ্যোক্তা মো. শামীম মিয়া। সরকারি আনন্দ মোহন কলেজের সহকারী অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম। ঘাটাইল উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার একেএম শামসুল হক। দেউলাবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম খান, কে. নাগবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা- জেবুন নাহার, বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও ব্যবসায়ী মো. ফারুকুল ইসলাম ফারুক, শাজাহান আকন্দ ফাউন্ডেশনের সম্পদক ও পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. আলমগীর হোসেন, মুকুল একাডেমির প্রধান শিক্ষক মো. তাহাজ্জত হোসেন, দেউলাবাড়ি ইউনিয়ন বিএনপির সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক- মো. হাফিজুর রহমান ভূইঞা, অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য মো. শাহাদৎ হোসেন লেবু, পোড়াবাড়ি বণিক সমিতির সভাপতি আব্দুর রহমান (বাচ্চু), বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আসাদুজ্জামন (শাহীন), দেউলাবাড়ী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম মোস্তফাসহ শিক্ষক, সমাজ সেবক, সাংবাদিক বিভিন্ন স্কুলের ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকসহ সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।
অনুষ্ঠানে বক্তারা শাজাহান আকন্দের বর্ণাঢ্য কর্মময় জীবনে কথা উল্লেখ করে বক্তব্য প্রদান ও স্মৃতি চারণ করেণ। মৃত শাজাহান আকন্দের রুহের মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।
এ বছর ১ম শ্রেণি থেকে ১০ম শ্রেণি পর্যন্ত এ (+) প্লাস প্রাপ্ত সকল ছাত্রছাত্রীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান, সনদ বিতরণ ও নগদ অর্থ প্রদান করা হয়।

এ সময় শাজাহান আকন্দ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো. শামীম মিয়া বলেন, আমার পিতা মরহুম শাজাহান আকন্দ একজন সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা হয়েও অত্যন্ত সাদামাটা ও সহজ-সরল সদা হাস্যোজ্জ্বল সাদা মনের মানুষ ছিলেন। জীবনে কখনোই তাকে নীতি ও আদর্শ থেকে বিচ্যুত হতে দেখিনি। আপনারা আমার বাবার জন্য প্রাণভরে মন থেকে দোয়া করবেন এবং সেই সঙ্গে আমি যেন ভবিষ্যতেও আরো বৃহৎ পরিসরে বৃত্তি প্রদান সহ-সমাজের অসহায় হতদরিদ্র মানুষের পাশে থেকে সেবা প্রদান করতে পারি আমার জন্য দোয়া করবেন। ভবিষ্যতেও এ উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর