× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শুক্রবার
দুই সপ্তাহ পেছালো প্রিমিয়ার লীগ

আবারো বাড়লো বিদেশি কোটা

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ৩০ জানুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৮:৪৯

৩০শে জানুয়ারি শুরু হওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের একাদশতম আসর। নানা কারণে বারবার পিছিয়ে যাচ্ছে তা। দু’সপ্তাহ পিছিয়ে লীগ শুরু হবে আগামী ১৩ই ফেব্রুয়ারি। বিদেশি কোটা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাফুফের লীগ কমিটি। জাতীয় দলের ব্যর্থতার পরেও  বিদেশিদের সংখ্যা চার থেকে বাড়িয়ে পাঁচ জন করা হয়েছে। পাঁচ জনকেই খেলাতে পারবে প্রতিটি ক্লাব।
আগামী ১লা ফেব্রুয়ারি ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন। ৫ই ফেব্রুয়ারি এএফসি কাপের প্লে-অফে মালদ্বীপ চ্যাম্পিয়ন মার্জিয়া এফসির বিপক্ষে হোম ম্যাচ খেলবে ঢাকা আবাহনী।
এসব কারণ দেখিয়ে লীগ পেছানোর আবেদন করেছে বসুন্ধরা কিংস ও শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। আর তৃতীয়বারের মতো লীগ পেছানোর সিদ্ধান্ত নেয় বাফুফে। বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও লীগ কমিটির চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম মুর্শেদি বলেন, ‘১লা ফেব্রুয়ারি ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। নির্বাচনের সময় লীগ আয়োজনের প্রস্তুতি নেয়া কঠিন। ৫ই ফেব্রুয়ারি ঢাকা আবাহনী এএফসি কাপের প্লে অফ ম্যাচ খেলবে। এএফসির নিয়ম অনুযায়ী ম্যাচের তিন দিন আগে ভেন্যু ম্যাচ কমিশনারকে বুঝিয়ে দিতে হবে। ক্লাবগুলোর সঙ্গে আলোচনা ও সামগ্রিক বিষয় বিশ্লেষণ করে আমরা ১৩ই ফেব্রুয়ারি লীগ শুরুর সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ গত মৌসুমে ক্লাবগুলোর চার জন বিদেশির রেজিস্ট্রেশন ছিল। এই চারজনকেই খেলাতে পারতো ক্লাবগুলো। জাতীয় দলের কোচের বিরোধিতা স্বত্ত্বেও বিদেশিদের সংখ্যা বাড়িয়েছে বাফুফে। এখন প্রতিটি ক্লাব পাঁচজন বিদেশি ফুটবলার রেজিষ্ট্রেশন করতে পারবে। তবে শুরুর একাদশে থাকবেন চারজন। পঞ্চম বিদেশি বদলি হিসেবে নামতে পারবেন। সম্প্রতি জাতীয় দলের বৃটিশ কোচ জেমি ডে ঘরোয়া ফুটবলের কাঠামো নিয়ে সমালোচনা করে বলেন,  ক্লাব পর্যায়ে দেশি স্ট্রাইকাররা খেলার সুযোগ না পেলে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশের গোল খরা কাটবে না। লীগ কমিটির চেয়ারম্যান অবশ্য কোচের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেছেন, ‘দেশি ফুটবলারদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা ও যোগ্যতার ভিত্তিতেই জায়গা করে নিতে হবে। ঘরোয়া পর্যায়ে নিজের পজিশন না করতে পারলে আন্তর্জাতিক ম্যাচে কিভাবে আরেকজন বিদেশির বিরুদ্ধে খেলবে।’
আসন্ন লীগে নতুন ভেন্যু কুমিল্লা জেলা স্টেডিয়াম। ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান ক্লাব কুমিল্লাকে নিজেদের হোম ভেন্যু হিসেবে নিয়েছে। গত আসরের নোয়াখালী ভেন্যু বাদ পড়েছে ওই ভেন্যুর দুই স্বাগতিক নোফেল স্পোর্টিং ক্লাব ও টিম বিজেএমসি উভয়ে রেলিগেটেড হওয়ায়। গতবারের মতো এবারও মুক্তিযোদ্ধার ভেন্যু গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়াম, সাইফ স্পোর্টিংয়ের ময়মনসিংহের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়াম, বসুন্ধরা কিংসের নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম আবাহনীর চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়াম ও শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের সিলেট জেলা স্টেডিয়াম হোম ভেন্যু হিসেবে থাকছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর