× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবর
ঢাকা, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার

আসামে সরকারি সংস্কৃত ভাষাকেন্দ্র ও মাদ্রাসা বন্ধের ঘোষণা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:৪৪

আসামে সরকারি অর্থায়নে পরিচালিত সংস্কৃত ভাষা কেন্দ্র ও মাদরাসাগুলোকে বন্ধ করে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে রাজ্য সরকার। ওইসব প্রতিষ্ঠানে এর পরিবর্তে সাধারণ স্কুল শিক্ষা চালু করা হবে। বুধবার রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব স্বর্মা এই ঘোষণা দেন। এ খবর দিয়েছে নর্থ-ইস্ট নাউসহ ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো।

তিনি বলেন, রাজ্যে যেসব সংস্কৃত ভাষাকেন্দ্র ও মাদরাসা রয়েছে সেগুলোকে হাইস্কুলে পরিণত করা হবে। সরকার আগামি ৪ থেকে ৫ মাসের মধ্যেই এই কাজ স¤পন্ন করতে চায়। এ নিয়ে রাজ্যের রাজধানী গুয়াহাটিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তিনি। সাংবাদিকদের কাছে বিশ্ব স্বর্মা বলেন, সরকার আর নিজ অর্থে কোনো ধর্মীয় শিক্ষার ব্যায় বহন করতে চায়না।
এ কারণেই হিন্দুদের সংস্কৃত শেখা কিংবা মুসলিমদের মাদরাসা বন্ধ করে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। কেউ যদি ব্যক্তিগতভাবে তার ধর্মের শিক্ষা গ্রহণ করতে চায় তাহলে কোনো সমস্যা নেই। কিন্তু রাজ্য যদি আজ কোরান শেখার জন্য অর্থ প্রদান করে তাহলে তাকে গিতা ও বাইবেল শেখার জন্যেও অর্থ প্রদান করতে হবে। কারণ, এখানে একটি ধর্ম নিরপেক্ষ সরকার ক্ষমতায় রয়েছে।
তিনি এরপর আবারো ¯পষ্ট করে জানান যে, তারা শুধু সরকারি মাদরাসা ও সংস্কৃত কেন্দ্রের জন্য এ সিদ্ধান্ত প্রযোজ্য হবে। মসজি™গুলোতে যে মাদরাসা রয়েছে কিংবা যেসব বেসরকারি সংস্থা সংস্কৃত স্কুল চালাচ্ছে সেগুলো তাদের নিজস্ব গতিতেই চলবে। একইসঙ্গে তিনি আশ্বস্থ করে বলেন যে, সরকারি মাদরাসা ও সংস্কৃতি কেন্দ্রে কর্মরত শিক্ষক বা প-িতরা তাদের চাকরি হারাবে না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর