× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৩১ মার্চ ২০২০, মঙ্গলবার

‘সব সময় নিজেদের কথা ভাবলে চলে না’

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বুধবার, ৮:১৮

নিরাপত্তা নিয়ে পরিবার উদ্বিগ্ন থাকায় তিন দফার পাকিস্তান সফর থেকে আগেই নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন মুশফিকুর রহীম। বাংলাদেশ দল দুই দফায় পাকিস্তান সফর করে আসার পর তৃতীয় দফায় মুশফিককেও চাইছে টিম ম্যানেজমেন্ট। মুশফিক মত বদলাবেন প্রত্যাশা করে বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন মন্তব্য করেছেন, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ খেলে এলেও মুশফিককে নিয়েই কেবল পরিবারের চিন্তা, এটা তিনি বিশ্বাস করেন না। মুশফিককে সব সময় নিজের কথা না ভেবে দেশের কথাও ভাবার পরামর্শ দিয়েছেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট।

পাকিস্তান সফরে কাউকে জোরাজুরি করা হবে না, কেউ চাইলে এই সফর থেকে নিজেকে সরিয়ে নিতে পারে, এমন সিদ্ধান্ত আগে থেকেই ছিল বোর্ডের। সে অনুযায়ীই যাননি মুশফিক। বোর্ডের সেই অবস্থান আগের মতো থাকলেও নিজের কথাতেই সাংঘর্ষিক বার্তা  দিলেন বিসিবি বস। মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গতকাল জিম্বাবুয়েকে ইনিংস ও ১০৬ রানে হারানোর পর গণমাধ্যমের সঙ্গে তিনি বলেন,  ‘আশা করছি সে যাবে।
প্রত্যেক চুক্তিভুক্ত খেলোয়াড়ের যাওয়া উচিত। দেশের কথাও চিন্তা করতে হবে, সব সময় নিজের কথা চিন্তা করলে হবে না। প্রত্যেকের পরিবার গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু দেশটা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এটা মাথায় থাকতে হবে। তারা  খেলোয়াড়, দেশের হলে খেলা হলে খেলতে হবে। এটা বলার কিছু নাই।’ এপ্রিল মাসে বাংলাদেশের পরের টেস্ট পাকিস্তানে, টেস্টের আগে সেখানে একটি ওয়ানডেও খেলবে বাংলাদেশ। এই সফরে মত বদলে মুশফিক যেতে পারেন বলে গুঞ্জন ছড়িয়েছে। তবে মুশফিক মত বদলে যাচ্ছেন, এমন খবর এখনো নিশ্চিতভাবে পাননি নাজমুল হাসান পাপন। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ডাবল সেঞ্চুরি করে ম্যাচ সেরা হওয়া মুশফিককে পুরস্কার তুলে দেওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই বরং মুশফিকের আগের দুবার পাকিস্তানে না যাওয়ার কঠোর সমালোচনা করেছেন তিনি। ভায়রা ভাই মাহমুদুল্লাহ প্রসঙ্গ টেনে বিসিবি প্রধান মুশফিকের পরিবারের উদ্বেগ নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেন,  ‘আমাদেরও ভয় ছিল (পাকিস্তানে যাওয়া নিয়ে)। যারা গেছে তাদের ভয় ছিল না?  এখন যারা খেলে এসেছে, তার (মুশফিক) বাড়ির লোকও তো খেলে এসেছে। আমি বলতে চাচ্ছি রিয়াদের বেলায় কিছু হবে না, ওর বেলায় খালি পরিবার কান্নাকাটি করবে নাকি, চিন্তিত নাকি? এরকম আমি বিশ্বাস করি না।’ নাজমুল আশা করেন আত্মীয় মাহমুদুল্লাহ ও অন্যদের কথা শুনে মত বদল করবেন মুশফিক, ‘রিয়াদের কাছ থেকে শুনতে পারে অন্যদের কাছ থেকে শুনতে পারে। মানে সে মন বদলাতে পারে।’

আবার এও বলেছেন, ‘পাকিস্তান ভিন্ন ইস্যু। পাকিস্তানের ব্যাপারে বলেছি কাউকে আমরা জোর করব না। আমি মনে করি সবার সঙ্গে কথাবার্তা বললে যাওয়া উচিত।’ ৩ করাচিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে একটি ওয়ানডে খেলবে বাংলাদেশ। ৫ এপ্রিল একই ভেন্যুতে খেলবে টেস্ট ম্যাচ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর