× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৯ এপ্রিল ২০২০, বৃহস্পতিবার

আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ গায়িকার

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক | ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১২:১৭

গ্র্যামি-পুরস্কারে সমৃদ্ধ গায়িকা ডাফি। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে জীবনের এক কালো অধ্যায়ের কথা তিনি জানালেন ইনস্টাগ্রামে। দীর্ঘদিন ধরেই দর্শকের চোখের আড়ালে রয়েছেন তিনি। কিন্তু কেন? নিজেকে গুছিয়ে  ফের একবার গানের জগতে, দর্শকের মাঝে নিয়ে আসতে সময় নিয়েছেন তিনি। কারণ, তার শরীরকে পণ্য হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে বলেই দাবি গায়িকার। দীর্ঘদিন তাকে আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন গায়িকা। এরপর এক সাংবাদিকের সহায়তায় তিনি সেখান থেকে বের হয়ে স্বাভাবিক জীবন যাপনের চেষ্টা করেছেন। ইনস্টাগ্রামে নিজের ছবি-সহ দীর্ঘ পোস্টে ডাফি ফ্যানেদের কাছে সাহায্যের আবেদন করেছেন।
মঙ্গলবার পোস্ট করে ডাফি ফিরে আসার জন্য তার সময় নেওয়ার কারণ বর্ণনা করেছেন। তিনি লিখেছেন, আপনারা ভাবতে পারেন কেন আমি আমার গলা ব্যবহার করিনি নিজের বেদনা প্রকাশের জন্য। আমি আসলে চাইনি পৃথিবী আমার চোখে দুঃখ দেখুক। আমি নিজেকে জিজ্ঞেস করেছি, আমি কীভাবে গাইব যদি হৃদয়ই ভেঙে যায়। খুব ধীরে ধীরে সে ক্ষতে মলম পড়ল। ২০০৮ সালে ডাফির প্রথম অ্যালবাম ‘রকফেরি’ প্রকাশ হয়। গ্র্যামিতে এটি সেরা পপ ভোকাল অ্যালবামের পুরস্কার  পেয়েছিল। তার গান ‘মার্সি’ অসম্ভব জনপ্রিয়তা পায়। এর পর ২০১০-এ প্রকাশিত হয় অ্যালবাম 'এন্ডলেসলি'। যদিও তার পর থেকেই তিনি আর গান গাননি। যদিও ধীরে ধীরে নিজেকে সামলাতে চেয়েছেন তিনি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর