× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৩০ মার্চ ২০২০, সোমবার

অপহরণকারীকে ছেড়ে দেয়ায় ওসি’র বিরুদ্ধে মামলা

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৫:৫০

মামলা না নিয়ে অপহরণকারীদের ছেড়ে দেয়ার অভিযোগে সাভার থানার অফিসার ইনচার্জসহ (ওসি) ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন এক মানবাধিকারকর্মী। এ মামলায় ওসি বাদে আরও তিনজন পুলিশ কর্মকর্তাকে আসামি করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার  ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুন্নাহারের আদালতে মামলাটি করেন ‘মানবাধিকার খবর’ নামে মাসিক সম্পাদক ও মানবাধিকারকর্মী রিয়াজ উদ্দিন।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা হয়, মামলার বাদী রিয়াজের সঙ্গে গত বছর ডিসেম্বরে আসামি বৃষ্টির পরিচয় হয় ফেসবুকে। বৃষ্টি বাদীকে একটি ছেলেসহ বিভিন্ন অসহায়ত্বের কথা বলেন। বাদী মানবাধিকারকর্মী হওয়ায় তার কাছে সহায়তা চান এবং সরজমিনে অসহায়ত্ব দেখে প্রতিবেদন প্রকাশের অনুরোধ করেন। বাদী সরল বিশ্বাসে আসামি বৃষ্টির কথায় গত ৩রা ফেব্রুয়ারি হেমায়েতপুরের বালুর মাঠের সোহরাব হোসেনের বাড়িতে দুপুর ১টার দিকে যান। সেখানে তিন-চারজন ছেলে তাকে বৃষ্টির ভাড়া বাড়িতে নিয়ে যান। সেখানে দরজা বন্ধ করে তাকে বেঁধে মারধর শুরু করেন এবং তার কাছে থাকা নগদ ১০ হাজার টাকা, মোবাইল, ক্যামেরা, এটিএম কার্ড নিয়ে যান। এরপর নির্যাতন করে এটিএম কার্ড ও বিকাশের পিন নম্বর নিয়ে ৬ হাজার টাকা তুলে নেন।
এরপর বাদীর মোবাইল নম্বর থেকে তার স্ত্রীসহ বিভিন্ন জনকে ফোন করে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেন তারা। এরপর বাদী সাভার থানায় যান এবং এ বিষয়ে অভিযোগ করেন।

আসামি সাভার থানার ট্যানারি পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) এনামুল হক ঘটনার দিন সন্ধ্যার দিকে ওই বাসায় অভিযান চালিয়ে অপর আসামিদের গ্রেপ্তার করেন। এ সময় আসামি বৃষ্টি, নয়ন কুমার, রনি ও অজ্ঞাত এক নারীকে থানায় নিয়ে আসেন।

মামলার প্রস্তুতির একপর্যায়ে পুলিশ বাদীকে আসামিদের সঙ্গে সমঝোতা করতে বলেন। সমঝোতা না করলে উল্টো ধর্ষণ ও শ্লীলতাহানির মামলায় বাদীকে মামলা দিয়ে আদালতে চালানের ভয় দেখান। পরে বাদীর কাছ থেকে সাদা কাগজে স্বাক্ষর নিয়ে তাকে থানা ছাড়তে বাধ্য করেন। এরপর বাদী জানতে পারেন আটকরা সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র। তাদের কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা ঘুষ নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ।

মামলার আসামিরা হলেন- সাভার থানার ওসি এফ এম শাহেদ হোসেন, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাকারিয়া, উপ-পরিদর্শক (এসআই) পলি, সাভার থানার ট্যানারি পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) এনামুল হক, অপহরণকারী বৃষ্টি, তার স্বামী শুধাংশ রায়, নয়ন কুমার ও রনি। এছাড়া অজ্ঞাতনামা ৫-৬ জনকে আসামি করা হয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Quamrul Islam
২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৭:৪৪

What a hell?

অন্যান্য খবর