× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৪ এপ্রিল ২০২০, শনিবার
বই মেলায় প্রকৌশলী মনিরের

‘বজ্রপাতের পূর্বাভাস ও সুরক্ষার কৌশল’

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৮:২২

অমর একুশের বই মেলায় প্রকৌশলী মো. মনির হোসেনের  ‘বজ্রপাতের পূর্বাভাস ও সুরক্ষার কৌশল’ নামে একটি বই প্রকাশিত হয়েছে। বইটি প্রকাশ করেছে সাম্প্রতিক প্রকাশনী। আর বইটি উৎসর্গ করা হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। বইটি পাওয়া যাচ্ছে বই মেলার ৩৩৬ নম্বর স্টলে। বইটিতে তুলে ধরা হয়েছে, বিগত বছরগুলোতে যতো মানুষ মারা গেছে তার ৮৭.৪৮ শতাংশ মানুষ মারা গেছে গ্রামে। গ্রামের এই মানুষজনকে বাঁচাতে নেয়া হয়নি তেমন কোনো উদ্যোগ। বইয়ে বজ্রপাত থেকে হাওরাঞ্চলের কৃষকের বাঁচাতে উপায় বাতলে দেয়া হয়েছে। বইটির লেখক মনির হোসেন বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বিশ্বব্যাপী বজ্রপাতের সংখ্যা দিন দিন আশংকাজনক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে।
এতে বলা হয় সাধারণ মানুৃষের মৃত্যুর হার বেড়েই চলছে। বিজ্ঞানীরা বজ্রপাত বৃদ্ধির কারণ হিসেবে পৃথিবীর তাপমাত্রা বৃদ্ধিকে দায়ী করেছেন। ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোনিয়ার গবেষক ডেভিড রমার উদ্বৃতি দিয়ে তিনি বলেন, গত ১৮ বছরে বজ্রপাত বেড়েছে প্রায় ৩৩ শতাংশ। ভৌগলিক অবস্থা ও জলবয়িু পরিবর্তনের চরম ঝুঁকিতে বাংলাদেশের অবস্থান। দুয়োগ মন্ত্রণালয়ের এক রেকের্ডে দেখা গেছে, ২০১৫ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত বজ্রপাতে মানুষ মারা গেছে ১৬৮৭ জন। এর মধ্যে সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে মারা গেছে ২৫৩ জন। এই হিসেবে ৯৭.৪৮ সতাংশ  গ্রামের কৃষক, শ্রমিক, দিনমজুর, গৃহিনী,স্কুল-কলেজ ও খেলার মাঠের ছাত্রছাত্রী ও অন্যান্য পেশার মানুষ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর