× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩০ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার

অজ্ঞাত উৎস থেকে ভারতের রাজনৈতিক দলগুলো পেয়েছে ১১২৩৪ কোটি রুপি

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১০ মার্চ ২০২০, মঙ্গলবার, ১:৩২

গত ১৫ বছরে অজ্ঞাত উৎস থেকে ভারতের প্রধান রাজনৈতিক দলগুলো পেয়েছে  বিপুল পরিমাণ অর্থ। দল চালাতে ভারতের সব রাজনৈতিক দলই বিভিন্ন সংস্থা ও ব্যক্তির কাছ থেকে নানাভাবে চাঁদা তোলে। তবে রাজনৈতিক দলগুলো কোথা থেকে অর্থ পাচ্ছে তা যদি ২০ হাজার রুপির উপরে হয়, তবে তা আয়কর কর্তৃপক্ষকে জানানো বাধ্যতামূলক। এসোসিয়েশন অব ডেমোক্রেটিক রিফর্মস (এডিআর)  নির্বাচন কমিশনে দেশটির ৭টি জাতীয় রাজনৈতিক  দলের দেয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে জানিয়েছে, ২০০৪ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত ভারতের প্রধান রাজনৈতিক দলগুলো অজ্ঞাত উৎস থেকে ১১,২৩৪ কোটি রুপি তুলেছে।  জাতীয় রাজনৈতিক দলগুলোর তালিকায় রয়েছে বিজেপি, কংগ্রেস, তৃণমূল কংগ্রেস, সিপিআইএম, এনসিপি, বহুজন সমাজ পার্টি ও সিপিআই। নির্বাচন কমিশনে দেয়া তথ্য অনুযায়ী মায়াবতীর বহুজন সমাজ পার্টি কুপন, ইলেকট্রারাল বন্ড বা অজ্ঞাত উৎস থেকে কোনও চাঁদা গ্রহণ করেনি। তবে অন্য জাতীয় দলগুলো গত পনের বছরে নিয়েছে ১১,২৩৪.১২ কোটি রুপি। অজ্ঞাত উৎস থেকে বিজেপির নেয়া চাঁদার পরিমাণ ১,৬১২.০৪ কোটি রুপি। অজ্ঞাত উৎস থেকে সব জাতীয় দলের নেয়া অর্থের ৬৪ শতাংশই এসেছে বিজেপির তহবিলে।
কংগ্রেসের দেয়া তথ্য অনুযায়ী অজ্ঞাত উৎস থেকে তাদের আয়ের পরিমাণ ৭২৮.৮৮ কোটি রুপি। ওই অর্থ তাদের মোট আয়ের ২৯ শতাংশ। কুপন বিক্রি করে কংগ্রেস ও এনসিপি ২০০৪ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত তুলেছে ৩,৯০২.৬৩ কোটি রুপি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর