× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩০ অক্টোবর ২০২০, শুক্রবার

হুগলি নদীতে বাংলাদেশি বার্জ ডুবি

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১২ মার্চ ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৩:২৩
ফাইল ফটো

পশ্চিমবঙ্গের বজবজের কাছে হুগলি নদীতে ফ্লাইঅ্যাশ ভর্তি একটি  বাংলাদেশি বার্জ ডুবে গেছে। বাংলাদেশেরই অন্য একটি বার্জের সঙ্গে ধাক্কা লেগে  বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই ‘এমভি মমতাময়ী মা’ নামের বাংলাদেশি বার্জটি একদিকে  কাত হতে শুরু করে। স্থানীয়রা দ্রুত পুলিশ ও  বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করলেও বার্জটিকে ডুবে যাওয়া থেকে রক্ষা করা যায়নি। তৈরি ছিল রিভার ট্রাফিক পুলিশও। সকলেই উদ্ধার কাজ নিয়ে আলোচনা করছিলেন। এমন সময় নদীতে বান আসায় উদ্ধারকারী সকলের চোখের সামনে পানির প্রবল তোড়ে মাঝ নদীতে ডুবে যায় ‘এমভি মমতাময়ী মা’। বজবজের একটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে ফ্লাইঅ্যাশ ভরে বাংলাদেশে ফেরত যাওয়ার পথেই এই  বিপত্তি ঘটে। আরেকটি বার্জের সঙ্গে ধাক্কা লাগার পর বার্জের ভিতরে আগুন ধরে গিয়েছিল।
কোনও মতে আগেই বেরিয়ে আসেন বার্জে থাকা শ্রমিকসহ অন্যরা। বার্জটি ফাঁকা থাকায় প্রাণহানি এড়ানো গিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ফ্লাইঅ্যাশের প্রভূত চাহিদা বাংলাদেশে। প্রায় দিনই কলকাতার হলদিয়া ও বজবজ থেকে বাংলাদেশি বার্জগুলি ফ্লাইঅ্যাশ ভর্তি করে বাংলাদেশে ফিরে যায়। তবে মাঝে মাঝেই নদীতে দুর্ঘটনায় এইসব বার্জ ডুবেও যায়। প্রশাসনের এক অংশের অভিযোগ, বাংলাদেশের যে সব বার্জ ফ্লাইঅ্যাশ নিতে আসে সেগুলির কাঠামো খুব একটা ভাল নয়। অধিকাংশ সময়ই যান্ত্রিক ত্রুটির খবর পাওয়া যায়। এদিকে বৃহস্পতিবার বার্জ ডুবির পর বিদ্যুৎ সংস্থার পক্ষ থেকে সরকারের কাছে নদীর পানির দূষণ সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট পাঠানো হচ্ছে বলে জানা গেছে। বার্জটিকে যাতায়াতের পথ থেকে উদ্ধারেরও চেষ্টা হবে বলে জানা গেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর