× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৩০ মার্চ ২০২০, সোমবার

টুকরো খবর

বাংলারজমিন

| ২৪ মার্চ ২০২০, মঙ্গলবার, ৮:০২


মানিকগঞ্জে ২ প্রবাসীর অর্থদণ্ড
স্টাফ রিপোর্টার, মানিকগঞ্জ থেকে: মানিকগঞ্জে হোম কোয়ারেন্টিন অমান্য করায় বিদেশ ফেরত ব্যক্তিদের সীমিত পরিসরে অর্থদণ্ড করার পরও তারা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। প্রায় দিন জেলার কোনো না কোনো এলাকায় বিদেশ ফেরত প্রবাসীদের অর্থদণ্ডের মাধ্যমে জরিমানা আদায় করছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। তারপরও অবাধে বাইরে ঘোরাফিরা করছেন অনেক প্রবাসী। তারা কোনো নিয়মনীতির তোয়াক্কা করছেন না। ফলে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বাড়িয়ে দিচ্ছেন সদ্য বিদেশ ফেরত ব্যক্তিরা।
গতকাল শিবালয় উপজেলার উথুলী কাতরাসিন গ্রামে ভারত ফেরত বিশ্বজিৎ শিকদার (৫০) নামের এক ব্যক্তিকে হোম কোয়ারেন্টিন অমান্য করার অপরাধে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফিরোজ মাহমুদ।
গোপালগঞ্জে ৩২৮ জন
হোম কোয়ারেন্টিনে

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জে তের দেশের ৩২৮ জন প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। তবে গতকাল বেলা ৩টা পর্যন্ত গোটা গোপালগঞ্জ জেলায় করোনা ভাইরাসে কেউ আক্রান্ত হয়নি। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন নিয়াজ মাহমুদ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, করোনা মোকাবিলায় গোটা গোপালগঞ্জ জেলা- উপজেলা ও ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলো পুরো প্রস্তুত রয়েছে।
তিনি বলেন, গোপালগঞ্জ জেলা সদর, মুকসুদপুর, কাশিয়ানী, কোটালীপাড়া ও টুঙ্গিপাড়া উপজেলা ছাড়াও প্রতিটি ইউনিয়নে অবস্থিত স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলো করোনা মোকাবিলায় প্রস্তুত রাখা হয়েছে। জেলা পর্যায়ে ৮টি, উপজেলা পর্যায়ে ৫টি এবং ইউনিয়ন পর্যায়ে ৩টি করে আইসোলেশন রুম চালু রাখা হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবা প্রদানের জন্য প্রতিটি রুমে সব ধরনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়া সতর্কতামূলক প্রচার কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। গতকাল দুপুরের দিকে গোপালগঞ্জ আড়াইশ’ বেড হাসপাতাল পরিদর্শনকালীন দেখা যায়, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসাসেবা প্রদানের জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছেন। কমপক্ষে একশ’ মানুষকে প্রাতিষ্ঠানিকভাবে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা যাবে এমন ব্যবস্থাও করেছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
ঝিনাইদহে যুবক আইসোলেশনে
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহে করোনায় আক্রান্তের লক্ষণ থাকায় এক যুবককে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। গতকাল দুপুরে শহরের শিশু হাসপাতালে স্বাস্থ্য বিভাগের তৈরি করা আইসোলেশনে রাখা হয়।
ঝিনাইদহের সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম জানান, গত ১৪ই মার্চ শৈলকুপার ওই যুবক ঢাকা থেকে বাড়িতে এসেছে। কয়েকদিন আগে থেকে সে ঠাণ্ডা কাশিতে ভুগছিল। সোমবার প্রচণ্ড জ্বর নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসে। করোনা আক্রান্তের আরো কয়েকটি লক্ষণ থাকায় পরীক্ষা ও উন্নত চিকিৎসার জন্য শিশু হাসপাতালের আইসোলেশনে পাঠানো হয়। ঢাকা থেকে আইইডিসিআর কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা মোতাবেক তাকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর