× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৩০ মার্চ ২০২০, সোমবার

১০ হাজার পরিবারকে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিচ্ছে মাইজদী পৌরসভা

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার নোয়াখালী থেকে | ২৫ মার্চ ২০২০, বুধবার, ৭:২৬

করোনা ভাইরাস (কভিড-১৯) প্রতিরোধে নোয়াখালীর বিভিন্ন উপজেলায় বিদেশ ফেরত ৭২৫ জন প্রবাসীকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এদিকে সরকারি নিষেধ অমান্য করে হোম কোয়ারেন্টিন মেনে না চলায় জেলার সুবর্ণচরে দুই প্রবাসীকে ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল দুপুরে ৭২৫ প্রবাসী হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মো মোমিনুর রহমান। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে নোয়াখালী পৌরসভার পক্ষ থেকে জেলা শহরে ১০ হাজার পরিবারকে বাসা বাড়িতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। মঙ্গলবার থেকে এ কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। পৌর মেয়র শহিদ উল্লা খাঁন সোহেল জানান, পৌর এলাকার প্রত্যেকটি বাসা বাড়িতে এই হ্যান্ডস্যানিটাইজার পৌঁছে দেয়া হবে। করোনা ঝুঁকি না কমা পর্যন্ত এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। প্রথম বার দেওয়া হ্যান্ডস্যানিটাইজার শেষ হওয়ার পর পৌর ভবন থেকে আবার নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।
এদিকে করোনা ঝুঁকি এড়াতে লোকজনকে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলার বিষয়ে জেলা তথ্য অফিস বিভিন্ন স্থানে মাইকিং ও প্রচারপত্র বিলি করছে। বিদেশ ফেরত কেউ নির্দিষ্ট সময় হোম কোয়ারেন্টাইনে না থেকে বাইরে ঘুরাফেরা করলে জেল জরিমানার বিষয়ে সতর্ক বার্তা দেওয়া হচ্ছে। জেলা সিভিল সার্জন অফিসের তথ্য অনুযায়ী নোয়াখালীতে গত এক মাসে ৭হাজার ৭৯৫ জন বিদেশ থেকে দেশে ফিরেছে। এর মধ্যে আজ হোম কোয়ারেন্টাইনে আছে ৭২৫ জন এবং হোম কোয়ারেন্টাইন পিরিয়ড শেষ হওয়ায় ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে ১৯ জনকে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর