× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৩০ মার্চ ২০২০, সোমবার

ওসমানীনগরে মিলাদপড়া নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৬

বাংলারজমিন

ওসমানীনগর (সিলেট) প্রতিনিধি: | ২৫ মার্চ ২০২০, বুধবার, ৭:৩০

সিলেটের ওসমানীনগরে মিলাদ পড়াকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ৬ জন আহত হয়েছেন। সোমবার রাতে উপজেলার উমরপুর ইউনিয়নের মাটিহানী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে করোনার মহামারি থেকে রক্ষায় মাটিহানী জামে মসজিদে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এ সময় আশিক আলী পক্ষের লোকজন মিলাদ পড়তে চাইলে চমক আলী পক্ষের লোকজন মিলাদ ও কিয়াম পড়তে বাধা দেন। এ নিয়ে দুই পক্ষের লোকজনদের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে দুটি পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে মাটিহানী গ্রামের আসগর আলীর ছেলে মো. আল-আমীন, আশিক আলীর ছেলে রাসেল মিয়া ও মোবাশ্বির আলীর ছেলে সুবেল আহমদ ও আনফর আলীর ছেলে চমক আলীসহ ৬ জন আহত হন। আহতদের মধ্যে আল আমিনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন তার ভাই রুবেল মিয়া।
এর আগে রোববার শবে মেরাজের রাতে মিলাদ পড়া নিয়েও দুই পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডা হলে উপস্থিত মুসল্লিয়ানগণ বিষয়টি মীমাংসা করে দিয়েছিলেন। চমক আলী বলেন, দেশবাসীর মুক্তি কামনা দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।এ সময় একটি পক্ষ মিলাদ পড়তে চেয়েছিল। অন্য পক্ষ বাধা দিলে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। আশিক আলী বলেন, আমি আমার আহতদের নিয়ে ব্যস্ত আছি। আলামীন ও রাসেলের অবস্থা আশংকাজনক। তাই কথা বলতে পারছি না। উমরপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বলেন, দুটি পক্ষই গ্রামের প্রভাবশালী। মসজিদে মিলাদ পড়া নিয়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ওসমানীনগর থানার ওসি রাশেদ মোবারক সংঘর্ষের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মিলাদ পড়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটেছে। বিষয়টি পুলিশ নজরদাড়িতে আছে, তবে এখনো কেউ কোন অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর