× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৫ এপ্রিল ২০২০, রবিবার
আলাপন

‘আগে কনটেন্ট অনেক জীবনমুখী ছিল’

বিনোদন

| ২৫ মার্চ ২০২০, বুধবার, ৯:৫৩

তারিক আনাম খান। টিভি নাটক ও সিনেমা দুই পর্দাতেই নিয়মিত অভিনয় করছেন।  তবে এখন করোনা ভাইরাসের কারণে সবার মতো তিনিও ঘরেই সময় কাটাচ্ছেন। অভিনয় ও সমসাময়িক নানা প্রসঙ্গে কথা হয় তার সঙ্গে। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন এন আই বুলবুল

করোনা ভাইরাসে সব কিছু বন্ধ হয়ে গেছে। সময় কাটাচ্ছেন কিভাবে?
সবার মতো আমিও ঘরে বন্দি হয়ে আছি। এটাকে আসলে বন্দি বলা ঠিক হবে না। এই সময়ে সচেতনার বিকল্প কিছু নেই। ঘরে থাকা সবার প্রয়োজন।
করোনা মহামারি থেকে বাঁচার জন্য সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।

এখন বিনোদনের বেশ কিছু নতুন মাধ্যম এসেছে। সেসব মাধ্যমের জন্য কাজ করছেন?
বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্ম এখন জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এগুলোর জন্য নিয়মিত ওয়েব ফিল্ম, ওয়েব সিরিজ নির্মাণ হচ্ছে। এরইমধ্যে তানিম নূরের পরিচালনায় ‘একাত্তর’ শিরোনামের একটি ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছি। এছাড়া শিহাব শাহীনের পরিচালনায় আরো একটি ওয়েব সিরিজে কাজ করেছি। এর পাশাপাশি দীপ্ত টিভির ‘দেনা-পাওনা’ নামের দীর্ঘ একটি ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় শুরু করেছি।

আপনার মুক্তি প্রতীক্ষিত ছবি সম্পর্কে জানতে চাই?
অনন্য মামুনের ‘মেকআপ’ নামে একটি ছবিতে অভিনয় করেছি। এটি মুক্তির অপেক্ষায় আছে। এটি নিয়ে আমি দারুণ আশাবাদী। আসলে ছবি এখন  তেমন হিট হয় না। সাম্প্রতিক সময়ে কয়েকটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। কিন্তু আশানুরূপ কোনো সুসংবাদ আসেনি। সঠিক সময়ে যদি ছবি মুক্তি দেয়া যায় এবং ভালো প্রচার-প্রচারণা করা যায় তাহলে ভালো কিছু হলেও হতে পারে।

মঞ্চ, টিভি নাটক এবং সিনেমা তিন মাধ্যমেই কাজ করেন। কোনটিতে অভিনয়ে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন?
আমি থিয়েটারের মানুষ। তাই বরাবরই ভালোবাসি মঞ্চে কাজ করতে। এর চ্যালেঞ্জ এবং এক্সসাইটমেন্ট আলাদা। কিন্তু যখন সিনেমায় কাজ করি, তখন এক রকমের চ্যালেঞ্জ থাকে। আবার যখন টিভি নাটকে কাজ করি তখন চিন্তা থাকে চরিত্রটি আলাদা কিছু করার, ভাবনাটা আলাদা থাকে।

দীর্ঘ সময় ধরে অভিনয় করছেন। একাল-সেকাল নিয়ে বলুন?
আগে কনটেন্ট অনেক জীবনমুখী ছিল। ছবিগুলোতে একটি  সোশ্যাল ম্যাসেজ ছিল। বর্তমান ছবিতে অনেক পরিবর্তন এসেছে। সময় পরিবর্তন হয়েছে  সেইসঙ্গে ছবির মেকিং, গল্প, চিত্রনাট্য সবই। সামাজিক দায়বদ্ধতা উপেক্ষা করে আমরা আসলে এখন বেশি বিনোদননির্ভর হয়ে যাচ্ছি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর