× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার

করোনা বনাম হানামি

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(৯ মাস আগে) মার্চ ২৬, ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১১:৩৩ পূর্বাহ্ন

এখন চেরি ফুলে ছেয়ে গেছে জাপানের বাগান, পার্ক। প্রতি বছরই এ সময়টাতে জাপানিরা এই চেরি ফুল দেখতে দলে দলে নেমে পড়েন। তারা একে উৎসব হিসেবে মনে করেন। তাই এ উৎসবকে নাম দেয়া হয়েছে চেরি ফুল দেখার উৎসব। জাপানিরা একে বলে থাকেন ‘হানামি’। কিন্তু এ বছর সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাস মানবতাকে বিপর্যস্ত করে তুলেছে। মানুষ বাঁচার জন্য যে যেভাবে পারেন, সেভাবে চেষ্টা করছেন। লকডাউন হয়ে আছে দেশের পর দেশ।
স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, সরকারি অফিস- সব বন্ধ। অতি আণবীক্ষণিক ওই করোনা ভাইরাসের আগ্রাসন থেকে বাঁচতে মানুষ বন্ধ করে দিয়েছে সীমান্ত। বিমান চলাচল। সব। নিজেদের করেছে ঘরের ভিতর স্বেচ্ছাবন্দি। কিন্তু সেই মুহূর্তে এসব ভয়কে পিছনে ফেলে জাপানিরা হানামি উৎসবে মেতেছেন। কিন্তু টোকিওর মেয়র ইউরিকো কোইকো বিষয়টিকে স্বাভাবিকভাবে নিতে পারেন নি। তিনি জাপানিদের অনুরোধ করেছেন জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হবেন না। কারণ করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। তাই তিনি বুধবার সংবাদ সম্মেলন করেছেন। তাতে বলেছেন, টোকিওতে এখন সঙ্কটকালীন মুহূর্ত চলছে। ওদিকে টোকিওতে করোনা ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ জন। আর ২৪ ঘন্টায় জাপানে মারা গেছেন ২ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৮।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর