× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৩ ডিসেম্বর ২০২০, বৃহস্পতিবার

বিড়াল দেখে ব্রেক, প্রাণ গেলো ইবি শিক্ষার্থীর

শিক্ষাঙ্গন

ইবি প্রতিনিধি | ২৬ মার্চ ২০২০, বৃহস্পতিবার, ২:০৪

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র বাবার শ্যালো ইঞ্জিন চালিত আলমসাধু গাড়ি উল্টে নিহত হয়েছে। নিহত শিহাব আলী (২০) ইবির আইন বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের ছাত্র। বুধবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার চুনিয়াপাড়া নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নিহত শিহাব আলী মিরপুর উপজেলার চুনিয়াপাড়া গ্রামের মনোয়ার হোসেনের ছেলে। বাবা কাঠের গুড়ার ব্যবসা করেন। বুধবার রাতে বাবা, ছোট ভাই সজিব ও চাচাতো ভাইসহ কাঠের গুড়া নিয়ে বাড়ি ফিরছিল শিহাব। বাবার ওই আলমসাধু গাড়ি চালাচ্ছিল শিহাব। তারা নিজ গ্রামের পূর্ব চুনিয়াপাড়ার চেয়ারম্যান মোড়ে আসলে সামনে বিড়াল দেখে জোরে ব্রেক করে। এতে গাড়ি উল্টে শিহাব ও সজিব চাপা পড়ে যায়।
নিজ সন্তানদের অবস্থা দেখে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন শিহাবের বাবা। গভীর রাত হওয়ায় আশেপাশে কোনো সাহায্যকারী ছিল না। দীর্ঘ সময় পর কয়েকজন স্থানীয় লোকজন এসে তাদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া সদর হাসপাতালে পাঠায়। হাসপাতালে যাবার পথেই শিহাব মারা যায়। দূর্ঘটনায় আহত অন্যরা এখন সুস্থ রয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে শিহাবের মৃত্যুতে তার পরিবার, এলাকাবাসী এবং ক্যাম্পাসের বন্ধুদের মাঝে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও আইন বিভাগ।

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম জানান, রাতে শিহাব আলী বাড়িতে যাবার সময় আলমসাধু উল্টে চাপা পড়ে। এসময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর