× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ২৮ মার্চ ২০২০, শনিবার

কিশোরগঞ্জে ৩৮৮ জন কোয়ারেন্টিনে

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, কিশোরগঞ্জ থেকে | ২৭ মার্চ ২০২০, শুক্রবার, ৬:৫২

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কিশোরগঞ্জে নতুন করে ৭৩ জনকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় এই ৭৩ জনকে কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে। তথ্য অনুযায়ী, কিশোরগঞ্জ জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে হোসেনপুরে ১ জন, তাড়াইলে ৭ জন, পাকুন্দিয়ায় ১ জন, কটিয়াদীতে ১৬ জন, ভৈরবে ৪৭ জন ও ইটনায় ১ জনকে নতুন করে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এছাড়া এই ২৪ ঘণ্টায় ৯৮ জন তাদের কোয়ারেন্টিন সমাপ্ত করেছেন। তাদের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৩ জন, হোসেনপুরে ২ জন, করিমগঞ্জে ১ জন, তাড়াইলে ৪ জন, পাকুন্দিয়ায় ৭ জন, কটিয়াদীতে ১৯ জন, ভৈরবে ৪৬ জন, নিকলীতে ১ জন, ইটনায় ১ জন, মিঠামইনে ৫ জন ও অষ্টগ্রামে ৯ জন কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এ নিয়ে কিশোরগঞ্জ জেলায় মোট কোয়ারেন্টিনের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৩৫ জনে। তাদের মধ্যে মোট ৪৪৭ জন তাদের কোয়ারেন্টিন সমাপ্ত করেছেন।
বর্তমানে জেলায় মোট ৩৮৮ জন কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন। তাদের মধ্যে ১৭ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে এবং বাকি ৩৭১ জন হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন। তাদের সবাই বিদেশ ফেরত।
কিশোরগঞ্জ জেলার ১৩টি উপজেলার মধ্যে বর্তমানে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ১৯ জন, হোসেনপুরে ২৭ জন, করিমগঞ্জে ১৬ জন, তাড়াইলে ১১ জন, পাকুন্দিয়ায় ২৪ জন, কটিয়াদীতে ১০৫ জন, কুলিয়ারচরে ৩১ জন, ভৈরবে ১০৫ জন, নিকলীতে ৫ জন, বাজিতপুরে ১৯ জন, ইটনায় ১৩ জন, মিঠামইনে ৮ জন ও অষ্টগ্রামে ৫ জন কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন। এর মধ্যে অষ্টগ্রাম উপজেলার ৫ জনই প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে এবং ভৈরব উপজেলার ১২ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন।
কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মো. মুজিবুর রহমান জানান, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কিশোরগঞ্জে কোয়ারেন্টিন কার্যক্রম প্রতিদিনই জোরদার করা হচ্ছে। কোয়ারেন্টিনে থাকা প্রবাসীদের মধ্যে মোট ৪৪৭ জন তাদের কোয়ারেন্টিন সমাপ্ত করেছেন। এই সময়ে তাদের মধ্যে করোনা ভাইরাসের কোন লক্ষণ দেখা যায়নি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর