× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ২৮ মার্চ ২০২০, শনিবার

করোনায় ‘অন্য’ ভয়ে ক্রিকেটাররা

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২৭ মার্চ ২০২০, শুক্রবার, ৬:৫২

জাতীয় দল ছাড়া দেশের বেশির ভাগ ক্রিকেটারের রুটি-রুজি ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লীগ। চলতি  মৌসুমে এক রাউন্ড হওয়ার পর তা স্থগিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আপাতত ১৫ই এপ্রিলের আগে তা মাঠে গড়ানোর সম্ভাবনা ক্ষীণ। দেশের পরিস্থিতি ভালো না হলে অনিশ্চিয়তা আরো বাড়বে। বেশির ভাগ ক্রিকেটারের ভয় সামনে রোজা, ঈদ, তার ওপর আসছে বৃষ্টির মৌসুম। সব মিলিয়ে শেষ পর্যন্ত এবার লীগ মাঠে গড়াবে কিনা! যদি সেটি না হয় তাহলে বড় ধরনের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়বে। বিশেষ করে এবার উন্মুক্ত দলবদল হওয়াতে ক্রিকেটারদের দায়িত্ব সব ক্লাবের। এখানে বিসিবি ভূমিকা রাখতে পারবে না বলেই জানানো হয়েছে।
শঙ্কা প্রকাশ করেছেন দেশের ঘরোয়া লীগের ক্রিকেটাররা। তাদের মত, পরিস্থিতি ভালো হলে যেন লীগ আয়োজন হয়। ছোট পরিসরে হলেও যেন আয়োজক সংস্থা ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিশ (সিসিডিএম) লীগ ফের শুরু করে। নয়তো লীগে খেলা বেশির ভাগ ক্রিকেটারই পড়বে বড় ক্ষতির মুখে। তবে ঢাকা লীগের ক্রিকেটারদের চিন্তা করতে বারণ করছেন সিসিডিএমের সদস্য সচীব আলী হোসেন। এছাড়াও যে কোন সমস্যায় ক্রিকেটারদের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন কোয়াবের (ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন) সাধারণ সম্পাদক দেবব্রত পাল।
ভাবতে চাই না ‘লীগ হবে না’- তুষার ইমরান
করোনায় সারাবিশ্ব আক্রান্ত। এতে কারো কিছু করার  নেই। আমরা সবাই জানি বিসিবি কোন পরিস্থিতিতে লীগ স্থগিত করেছে। তাই বলছি আমি এখনই ভাবতে চাই না ঢাকা লীগ হবে না। পরিস্থিতি এমন হতে পারে সেই শঙ্কাতো আছেই। তবে আমি বিশ্বাস করি বিসিবি, সিসিডিএম আমাদের পাশে থাকবে। ক্রিকেটারদের ক্ষতি তারা হতে দিবে না। একটু দেরি হলেও যেন লীগটা ফের তারা শুরু করে এটাই আমার অনুরোধ।
ছোট পরিসরে হলেও হোক -ইলিয়াস সানি
এটাতো সত্যি, যে পরিস্থিতি তাতে কারো কিছু করার  নেই। কিন্ত সত্যি বলতে গেলে লীগ না হলে আমাদের ক্ষতি আরো বড় হবে। কারণ জাতীয় দলের খেলোয়াড় ছাড়া বেশির ভাগ ক্রিকেটার ঢাকা লীগের আয়ে নিজেদের জীবন ও সংসার চালায়। আমি মনে করি পরিস্থিতি ভালো হলে ছোট পরিসরে হলেও যেন ফের লীগটা শুরু হয়। নয়তো অনেক বড় ক্ষতি হয়ে যাবে আমাদের যারা শুধু লীগের উপরই নির্ভর করে চলি। সেই সঙ্গে বলবো যেন সরকারের নির্দেশ মেনে আমরা চলি। দ্রুত এই  বিপদ থেকে মুক্ত হই।
ভাবতেই ভয় লাগে- শামসুর রহমান শুভ
আমি কোনভাবেই চিন্তা করি না যে লীগ বন্ধ হয়ে যাবে। আমার এটি ভাবতেই ভয় লাগে। কারণ এই ঢাকা লীগেই আমাদের রুটি-রুজি, ফিটনেস ও পারফরম্যান্স ধরে রাখার একমাত্র পথ। কিন্তু এই মহামারি থেকেও আমাদের বাঁচতে হবে। তাই সবার কাছে আমার অনুরোধ করোনা ভাইরাস রুখতে আমাদের যা যা করণীয় সেই নির্দেশনা মেনে চলি। যেন দ্রুত এই বিপদ থেকে রক্ষা পাই। আবার মাঠে ফিরতে পারি আমরা। নয়তো ক্ষতিটা খুব বড় হবে আমাদের মত ক্রিকেটারদের জন্য যারা শুধু লীগে খেলেই জীবন চালাই।
সিসিডিএম ক্রিকেটারদের বিপদ হতে দেবে না- আলী হোসেন
এবার ক্রিকেটারদের দাবির মুখে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে দলবদল হয়েছে। যে কারণে ক্রিকেটারদের পাওনা পরিশোধের দায়িত্ব ক্লাবগুলোর। বিসিবি ও সিসিডিএম দায়িত্ব নিবে না এমনটাই বলা আছে। তারপরও আমরা ক্লাবগুলোকে অনুরোধ করেছি যেন প্রথম ধাপে ৫০ ভাগ টাকা পরিশোধ করে। বাকিটা ২৫ শতাংশ করে দিয়ে দেয়। লীগ হবে না সেটি এখনই চিন্তা করছি না। ছোট করে হলেও আমরা শেষ করবো এবারের ঢাকা লীগ। আর না হলেও আমরা ক্রিকেটারদের বিপদ হতে দিবো না। কারণ আমরা জানি এই লীগ খেলেই বেশির ভাগ ক্রিকেটারের সংসার চলে।
কোয়াবের বিশ্বাস ঢাকা লীগ হবে- দেবব্রত পাল
আমরা চিন্তা করতে চাই না ঢাকা লীগ হবে না। বিসিবি আছে, সিসিডিএম আছে তারা অবশ্য ক্রিকেটারদের কোনো ক্ষতি হতে দিবে না। সবচেয়ে বড় সত্য হলো করোনা সারা বিশ্বের মহামারি। এখানে আমাদের একমাত্র করণীয় হলো অপেক্ষা করা। এই বিপদ থেকে নিয়মগুলো মেনেই আমাদের বের হতে হবে। পরিস্থিতির দ্রুত উন্নতি হলে ভালো। আর যদি খারাপ হয়  বেশি সময় লাগে ভালো হতে তাহলেতো সবার জন্যই বিপদ। আমরা ক্রিকেটারদের সঙ্গে কথা বলছি। নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। যে কোনো পরিস্থিতিতে আমরা তাদের পাশে থাকবো। এখন একটাই অনুরোধ ক্রিকেট নিয়ে চিন্তা না করে নিজেরা কিভাবে ভালো থাকবেন সেই দিকে নজর দেয়া।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর