× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনরকমারিপ্রবাসীদের কথাবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকরোনা আপডেট
ঢাকা, ৪ এপ্রিল ২০২০, শনিবার

থমকে গেছে ময়মনসিংহ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ থেকে | ২৭ মার্চ ২০২০, শুক্রবার, ৭:২৩

করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে থমকে গেছে ময়মনসিংহ। রেলস্টেশন, বাসস্ট্যান্ড, ব্যস্ততম রাস্তা ও বিনোদন পার্ক জনমানবশূন্য। স্বাধীনতা-উত্তর বাংলাদেশে এমন কোনো দৃশ্য দেখছেন বলে কারো জানা নেই। গতকাল থেকে সরকারি-বেসরকারি অফিসসহ সব ধরনের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও ওষুধ বা নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান ছাড়া সব ধরনের দোকানপাট ও গণপরিবহন বন্ধের সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে। এবারে গণজমায়েতের ওপর সরকারের নিষেধাজ্ঞা থাকায় স্বাধীনতা দিবসে কোনো ধরনের অনুষ্ঠান হচ্ছে না। সবকিছু বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত ময়মনসিংহসহ সারা দেশে একসঙ্গে কার্যকর হওয়ায় হঠাৎ করেই থমকে গেছে মানুষের দৈনন্দিন জীবন এবং পুরো দেশের কার্যক্রম। প্রায় কোটি মানুষের শহরসহ ময়মনসিংহে রাস্তাঘাট সকাল থেকে সম্পূর্ণ ফাঁকা। দোকানপাট বা বাজারের আশেপাশে কিছু মানুষের হঠাৎ দেখা মিললেও তা অন্যান্য সময়ের তুলনায় একেবারেই নগণ্য।
রাস্তায় গাড়ির সংখ্যা ছিল হাতেগোনা। বেশ খানিকক্ষণ পর দেখা যায় একটি-দু’টি রিকশা বা একজন-দু’জন মানুষ। রাস্তায় বিভিন্ন জায়গায় ছিল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চেকপোস্ট। অপ্রয়োজনে মানুষজন যেন রাস্তায় ঘোরাঘুরি না করে তা নিশ্চিত করার চেষ্টা করছেন তারা। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সহায়তা করতে জেলা শহরে রাস্তায় নেমেছে সেনাবাহিনী। গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও প্রয়োজনীয় পণ্য সরবরাহ অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছিল সরকারের পক্ষ থেকে। ২৬শে মার্চ থেকে শুরু করে ৪ঠা এপ্রিল পর্যন্ত দশদিন বাংলাদেশে সবকিছু বন্ধ থাকবে বলে কথা রয়েছে। ফলে শ্রমজীবী মানুষ দুশ্চিন্তায় থাকলেও দুর্যোগ কেটে গেলে কষ্ট থাকবে না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর